উচ্চ মাধ্যমিকের ফল হাতে নিয়ে এখন শিক্ষার্থীদের সময় কাটছে পড়ার টেবিলে। দিনরাত কঠোর অধ্যবসায়ের মাধ্যমে প্রস্তুতি চলছে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির। ইতোমধ্যে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা হয়ে গেছে। দু'চোখে রঙিন স্বপ্ন আর ভবিষ্যতের কঠিন সময়টাকে কীভাবে মোকাবিলা করা যায়, তা নিয়ে শিক্ষার্থীদের ভাবনার শেষ নেই। সব মিলিয়ে সারাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে যে ভর্তিযুদ্ধ শুরু হচ্ছে, সে যুদ্ধে লাখও শিক্ষার্থী নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে লড়াই করবেন। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ গত ৮ এপ্রিল সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করেছে।

বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভায় তিনটি গুচ্ছে ৩২টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া চার সাধারণ শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সহ বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়। ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ভর্তি পরীক্ষা ৪ জুন শুরু হবে। এবারও দুই ধাপে ভর্তিযোগ্য শিক্ষার্থীদের নির্বাচন করা হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা ৩ জুন শুরু হচ্ছে। সব ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে ১৭ জুন।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) অনার্স প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা ৩১ জুলাই শুরু হবে। ভর্তি আবেদন শুরু হবে ১৮ মে থেকে। আবেদন করা যাবে ১৬ জুন পর্যন্ত।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১৬ আগস্ট শুরু হচ্ছে। চবি ভর্তি পরীক্ষা চলবে ২৫ আগস্ট পর্যন্ত। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) স্নাতক (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষার অনুষ্ঠিত হবে ২৫-২৭ জুলাই তারিখে। ভর্তির প্রাথমিক আবেদন শুরু হবে ২৫ মে থেকে। গুচ্ছভুক্ত তিনটি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা ৬ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে। রুয়েট, চুয়েট ও কুয়েট রয়েছে এই ৩ প্রকৌশল গুচ্ছে। গুচ্ছে ২২টি সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে ৩ সেপ্টেম্বর থেকে। তিন ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৩, ১০ এবং ১৭ সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে।
২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুটেক্স) ভর্তি পরীক্ষা ১২ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে বলে জানানো হয়েছে।

বুয়েট :বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা নেবে দুই ধাপে। এর মধ্যে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা (প্রাথমিক বাছাই) দুই শিফটে নেওয়া হবে আগামী ৪ জুন। এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা ১৮ জুন চূড়ান্ত ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেবেন। এসব তথ্য জানিয়ে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বুয়েট। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ১৬ এপ্রিল সকাল ১০টা থেকে অনলাইনের মাধ্যমে বুয়েটের স্নাতক ভর্তির প্রাথমিক আবেদন শুরু হবে। চলবে ২৫ এপ্রিল বিকেল ৩টা পর্যন্ত। মোবাইল ফোন বা অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে আবেদন ফি জমা দেওয়া যাবে ২৬ এপ্রিল বিকেল ৩টা পর্যন্ত।
'ক' গ্রুপে (প্রকৌশল ও বিভাগগুলো এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ) আবেদন, প্রাক্‌নির্বাচনী ও মূল ভর্তি বাবদ এক হাজার টাকা এবং 'খ' গ্রুপে (প্রকৌশল ও বিভাগগুলো, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ ও স্থাপত্য বিভাগে) ১ হাজার ২০০ টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ফি দিয়ে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

আসন সংখ্যা :পার্বত্য চট্টগ্রাম এবং অন্যান্য এলাকার ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীভুক্ত প্রার্থীদের প্রকৌশল বিভাগ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের জন্য মোট ৩টি এবং স্থাপত্য বিভাগে ১টি সংরক্ষিত আসনসহ মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ২৭৯টি।

ভর্তি পরীক্ষা কবে :প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা (প্রাথমিক বাছাই) দুই শিফটে নেওয়া হবে আগামী ৪ জুন। 'ক' ও 'খ' গ্রুপের জন্য মোট ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সময় এক ঘণ্টা। প্রথম শিফটের পরীক্ষা সকাল ১০টায় ও দ্বিতীয় শিফটের পরীক্ষা বিকেল ৩টায় শুরু হবে। প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় নেগেটিভ মার্ক করা হবে। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য প্রাপ্ত নম্বর থেকে প্রশ্নের মানের ২৫% কেটে নেওয়া হবে। ১১ জুন মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য আবেদনকারীদের নাম প্রকাশ করবে বুয়েট। আগামী ১৮ জুন বুয়েটের মূল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এই পরীক্ষায় রয়েছে- সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত মডিউল-এ 'ক' ও 'খ' গ্রুপের জন্য গণিত, পদার্থবিজ্ঞান ও রসায়ন। বেলা ২টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত মডিউল-বি 'খ' গ্রুপের মুক্তহস্ত অঙ্কন এবং দৃষ্টিগত ও স্থানিক ধীশক্তি। এরপর আগামী ৬ জুলাই নির্বাচিত ও অপেক্ষমাণ প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হবে।
আবেদনের পদ্ধতি :আবেদন করার নিয়ম ও ভর্তির নির্দেশিকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। ভর্তি পরীক্ষার সব কার্যক্রমের খবর বুয়েটের ওয়েবসাইট ও নোটিশ বোর্ডে পাওয়া যাবে।

২২ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা সেপ্টেম্বরে :
এ বছর ২২টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে গুচ্ছভিত্তিতে ভর্তি পরীক্ষা হবে আগামী সেপ্টেম্বর মাসে। তিন বিভাগের জন্য তিনটি পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ ঠিক করা হয়েছে আগামী ৩, ১০ ও ১৭ সেপ্টেম্বর। তবে কোন তারিখে কোন বিভাগের (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা) পরীক্ষা হবে সেটি এখনও ঠিক করা হয়নি।

ঢাবি প্রথমম বর্ষ-আবেদন প্রক্রিয়া শুরু ২০ এপ্রিল
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে। সময়সূচি অনুযায়ী বিজনেস স্টাডিজ অনুষদভুক্ত গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৩ জুন ২০২২ শুক্রবার, কলা অনুষদভুক্ত খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৪ জুন ২০২২ শনিবার, বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১০ জুন ২০২২ শুক্রবার, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১১ জুন ২০২২ শনিবার এবং চারুকলা অনুষদভুক্ত চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ১৭ জুন ২০২২ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে। 'ক', 'খ', 'গ' এবং 'ঘ' ইউনিটের পরীক্ষা সকাল ১১:০০টা থেকে দুপুর ১২ :৩০ মিনিট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।
'চ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) সকাল ১১:০০টা থেকে ১১:৩০ মিনিট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীক্ষা ঢাকাসহ ৮টি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে।

আগামী ২০ এপ্রিল ২০২২ বুধবার থেকে অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তি পরীক্ষার আবেদন এবং ফি জমা দেওয়া শুরু হয়ে ১০ মে ২০২২ মঙ্গলবার পর্যন্ত চলবে। আগামী ১৬ মে ২০২২ সোমবার থেকে পরীক্ষা শুরুর ১ ঘণ্টা পূর্ব পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে। সভায় 'ক', 'খ', 'গ' ও 'ঘ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বরের MCQ এবং ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। শুধু 'চ' ইউনিটের পরীক্ষায় ৪০ নম্বরের MCQ এবং ৬০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। 'ক', 'খ', 'গ' ও 'ঘ' ইউনিটের MCQ পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। 'চ' ইউনিটের MCQ পরীক্ষার জন্য ৩০ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য ৬০ মিনিট সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীদের নূ্যনতম যোগ্যতা হিসেবে ২০১৬ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত মাধ্যমিক/সমমান এবং ২০২১ সালের উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় (চতুর্থ বিষয়সহ) 'ক' ইউনিটের জন্য মোট জিপিএ৮ এবং আলাদাভাবে জিপিএ ৩.৫, 'খ' ইউনিটের জন্য মোট জিপিএ৭.৫ এবং আলাদাভাবে জিপিএ ৩.০, 'গ' ইউনিটের জন্য মোট জিপিএ৭.৫ এবং আলাদাভাবে জিপিএ ৩.৫, 'ঘ' ইউনিটের জন্য মোট জিপিএ ৭.৫ এবং আলাদাভাবে জিপিএ ৩.০ (তবে বিজ্ঞান, কৃষিবিজ্ঞান, গার্হস্থ্য অর্থনীতি এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞান শাখা থেকে আসা প্রার্থীদের জন্য মোট জিপিএ ৮ এবং আলাদাভাবে ৩.৫ থাকতে হবে) এবং 'চ' ইউনিটের জন্য মোট জিপিএ ৬.৫ এবং আলাদাভাবে জিপিএ ৩.০ থাকতে হবে।

ভর্তিসংক্রান্ত বিস্তারিত নির্দেশনা ও তথ্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট https://admission.eis.du.ac.bd-এ দেখা যাবে।