যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক অলাভজনক সংস্থা মার্স সোসাইটি আয়োজিত মঙ্গল গ্রহের মিশনভিত্তিক 'ইউনিভার্সিটি রোভার চ্যালেঞ্জ ২০২২' শীর্ষক আন্তর্জাতিক রোবটিক প্রতিযোগিতায় এশিয়ায় সেরা হয়েছে বাংলাদেশের ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির 'ইউআইইউ মার্স রোভার'। মঙ্গল গ্রহ অভিযানে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের উদ্ভাবনী রোবটিক প্রকল্প নিয়ে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে সংস্থাটি। গত ১ থেকে ৪ জুন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ উটাহের মার্স ডেজার্ট রিসার্চ স্টেশনে চারটি ধাপে প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হয় অংশগ্রহণকারী দলগুলো। চারটি ধাপে প্রতিযোগিতা শেষে এশিয়ার মধ্যে শীর্ষস্থান অর্জন করে ৯ সদস্যের 'ইউআইইউ মার্স রোভার'।

ইউআইইউ দলটির সমন্বয় ও তত্ত্বাবধানে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়টির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের প্রভাষক আকিব জামান। বিজয়ী দলের দলনেতা ইউআইইউর সিএসই বিভাগের রকিব হাসান, ব্যবস্থাপনায় দীপ চক্রবর্তী, যান্ত্রিক কৌশলে আবিদ হোসাইন, তড়িৎ কৌশলে আহম্মেদ জুনায়েদ তানিম, সফটওয়্যারে আবদুলল্গাহ আল-মাসুদ, যোগাযোগে টি এম আল-আনাম এবং বিজ্ঞান বিভাগে জিদান তালুকদার নেতৃত্ব দেন।
এশিয়ার শীর্ষ হলেও ৩৬টি দলের মধ্যে ইউআইইউ মার্স রোভারের অবস্থান ১৩তম। চূড়ান্ত পর্বে বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র, পোল্যান্ড, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, কলম্বিয়া, মিসর, মেক্সিকো, তুরস্কের প্রতিযোগীরা অনস্পট প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয় যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান ইউনিভার্সিটি, দ্বিতীয় সেরা অস্ট্রেলিয়ার মোনাস ইউনিভার্সিটি এবং তৃতীয় স্থান অর্জন করে যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি এস অ্যান্ড টির দল।

আয়োজকদের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, চূড়ান্ত রাউন্ডে নিজেদের তৈরি রোভারের ক্ষমতা এবং অপারেশন দক্ষতা প্রদর্শন করে অংশগ্রহণকারী দলগুলো।

এ জন্য রোভারগুলোকে অনুসন্ধান, স্বয়ংক্রিয় নেভিগেশন, চরম পরিস্থিতি মোকাবিলার সক্ষমতা এবং ইকুইপমেন্ট সার্ভিসিং- এই চারটি মিশনে পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হয়।

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভিসি অধ্যাপক ড. চৌধুরী মোফিজুর রহমান সমকালকে বলেন, 'বিশ্বের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সঙ্গে সরাসরি প্রতিযোগিতার মাধ্যমে এশিয়ায় সেরা হওয়া সত্যিই আনন্দের। তবে আমাদের শিক্ষার্থীদের আরও ভালো করার সক্ষমতা আছে। তাদের আমরা নিবিড় প্রশিক্ষণের মধ্যে রাখব যেন আগামী বছর তারা আরও ভালো করতে পারে।

গত এপ্রিল মাসে শুরু হওয়া প্রতিযোগিতার প্রাথমিক রাউন্ডে বিশ্বের ১৫টি দেশের ৯৯টি দল অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচিত হয়। এরপর বাছাই প্রক্রিয়া শেষে চূড়ান্ত রাউন্ডে ১০টি দেশের ৩৬টি দল অংশ নেয়। বাংলাদেশ থেকে প্রাথমিক রাউন্ডে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট ও আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশসহ (এআইইউবি) চারটি দল অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছিল। তবে চূড়ান্ত রাউন্ডে একমাত্র দল হিসেবে অংশগ্রহণ করে 'ইউআইইউ মার্স রোভার'।