তখন ঘড়িতে রাত নেমে আসে একটার ঘরে
যখন নদীর জলে পাল তুলে ঘুমের তরিটা
ক্লান্তির বন্দর ছেড়ে ধীরে ধীরে গভীর সমুদ্রে
ভেসে যায় এক অলৌকিক প্রশান্তির দীপ্তি নিয়ে;
হাওয়া নাচে শূন্যতার হাত ধরে প্রাণের খাঁচায়;
জেলেরা পেতেছে জাল কোজাগরি ইলিশ মৌসুমে
গাঙচিল বালিহাঁস উড়ে যাচ্ছে অদৃশ্য ডাঙায়।
হঠাৎ সমুদ্রে ঝড়ে এ কেমন মৃত্যুর উৎসব!
সাইরেন বাজিয়ে ছুটছে লাশবাহী শাদা অ্যাম্বুলেন্স
লক্ষকোটি মানুষের মধ্যে যদি প্রকৃত সুন্দর
একজন অসামান্য আলোকিত মাটির মানুষ
আমাকে জড়িয়ে রাখে ভালোবেসে ঘুমের গুহায়
সবকিছু ছেড়ে গিয়ে তবে আমি আগুনে ঘুমাব।

বিষয় : পদাবলি

মন্তব্য করুন