ক্লান্তিমুখর উৎসব শুধু
তাকিয়ে থাকে- পাশাপাশি সন্ধ্যায়
একাকী গোলাপ বাগানে;
মানুষহীন সংলাপ তবু ভিজে যায়
অন্যত্র 
অতিকায় বৃত্তের মুখোমুখি।

সুরম্য সন্ধ্যায় এসেছিল পরমা
গভীর কালোর মিছিল শেষে
অন্যসব জীবনের মতন
অস্থির আলুথালুবেশে-
হাতে ছিল জমানো পথের উৎসুক ধুলো
থিতানো কান্নার নীরব প্লাবন।

তবুও সে 
বিরতির গোস্‌সা নিয়ে
ছুটছে গণিতের পায়ে পায়ে-
থেমে থেমে 
পৌঁছে গেছে
এলোমেলো গলির গভীর সুর-তালে।

বিষয় : পদাবলি

মন্তব্য করুন