তোমার আঙিনা জুড়ে ফুটে আছে রাশি রাশি ফুল
হয়তো গোলাপ কিংবা গন্ধরাজ, শেফালি, বকুল
যে-নামেরই হোক তারা, সৌরভের কাছে সমর্পিত
হৃদয় বন্দরে আজ স্বপ্নের জাহাজ উপনীত।

হোক না সমুদ্রযাত্রা সুন্দরী ও জাহাজের বুকে
ভেসে যাও নিরুদ্দেশ সৌরভে মোহিত হয়ে। মুখে
থাকবে না কোনো কথা, ভেসে যাবে মুগ্ধতার
চোখে রেখে চোখ
সাজাবে স্বপ্নের রঙে আশ্চর্য মায়াবী কল্পলোক!
অচেনা যে-দ্বীপ দেশে নামবে সবুজ মখমলে
সেখানে পাহাড়, নদী, অরণ্য এবং জলেস্থলে
যুগল ইচ্ছেই সত্য, আর কোনো দুঃখ সত্য নয়
জ্যোৎস্নার জোয়ারে ভেসে একাকার মগ্নকেলি
আহ কী নির্ভয়!
পাহাড়ের পাখির ঝাঁক পাখা নেড়ে মুগ্ধ কলস্বরে
করবে আনন্দ-ধ্বনি, তারই প্রতিধ্বনি নেবে যুগল অন্তরে।
কুড়াবে দুহাতে কিছু স্বপ্নের কাঙ্ক্ষিত ফুল : স্বর্গীয় সৌরভ
বকুলচাঁপার বনে পুষ্পসজ্জা পেতে নেবে প্রেমের গৌরব।

এমন কল্পনা কারো কখনো বাস্তব হতো যদি
তাহলে কি পৃথিবীতে এত দীর্ঘ হতে পারে অতৃপ্তির নদী!

বিষয় : পদাবলি

মন্তব্য করুন