ঢাকা সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

আইইএলটিএস

ভালো স্কোর পেতে

ভালো স্কোর পেতে

জামিল সাইদ

প্রকাশ: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৮:০০

আইইএলটিএস রিডিং সেকশনটি তিনটি ভাগে বিভক্ত। যার মাধ্যমে তিনটি ভিন্ন রকম পাঠ পদ্ধতি আপনাদের প্রয়োজন। এ সেকশনে ভালো করার জন্য আপনার ভোকাবুলারির সংখ্যা বাড়ান। যদি আপনার ভোকাবুলারি ছয় হাজার শব্দের কম থাকে, তবে প্রতিদিন অন্তত পাঁচটি করে নতুন ইংরেজি শব্দ শিখুন।  প্রতিদিন ২০ মিনিট সময় নিয়ে একটা মজার ইংরেজিতে কিছু পড়বেন। আপনি দেখবেন প্রতিদিন কত পাতা পড়ছেন এবং ধীরে ধীরে গতি বাড়ছে কিনা। যদি সময় বেশি দেন তাহলে ফল পাবেন তাড়াতাড়ি। এই সেকশনটা অনেক কঠিন বলে অনেকে ধারণা করেন। এই সেকশনে ভালো করতে হলে আপনাকে অনেক সময় দিতে হবে কারণ এখানে কোনো শর্টকাট নেই। বেশি বেশি পড়ার কোনো বিকল্প নেই এই সেকশনে। বারবার প্র্যাকটিস করতে হবে, ভুল হবে, আবার কয়েকদিন পর চেষ্টা করতে হবে। যাদের বই পড়ার অভ্যাস আছে বিশেষ করে ইংরেজি বই তাদের জন্য একটু হলেও এই সেকশনটা সহজ হবে। যাদের বই পড়ার অভ্যাস নেই তাদের বলব, প্রতিদিন সময় করে ইংরেজি পত্রিকা পড়বেন। তবে মনে রাখবেন, এই সেকশনের ক্ষেত্রে স্পিড এবং সঠিক উচ্চারণ দুটিই গুরুত্বপূর্ণ। দেখবেন প্রতিদিন কত পাতা পড়ছেন এবং ধীরে ধীরে গতি বাড়ছে কিনা। যদি সময় বেশি দেন তাহলে ফল পাবেন তাড়াতাড়ি।
যতবেশি পড়বেন, তত বেশি জানবেন। তাই পড়ার কোনো বিকল্প নেই। বেশি দ্রুত পড়ুন যেন সারাংশ বোঝার চেষ্টা বৃদ্ধি পায়।
আইইএলটিএস পরীক্ষার অন্যতম কঠিন একটি অংশ হচ্ছে রাইটিং। আমরা অনেকেই এই অংশের প্রস্তুতি নিতে গিয়ে বুঝতে পারি না কোন জায়গা থেকে শুরু করব এবং কীভাবে এর প্রস্তুতি নিলে রাইটিংয়ে ভালো স্কোর করা যাবে। রাইটিং এর পার্টটা সহজ নাকি কঠিন, এটা নির্ভর করে আপনার প্রস্তুতির ওপর।
নিচের বিষয়গুলো গুরুত্ব দিলে আপনার ভালো স্কোর তোলার সুযোগ রয়েছে।
lএ সেকশনে ভালো করতে হলে এর প্রস্তুতি হিসেবে প্রচুর পড়তে হবে।
আইইএলটিএস পরীক্ষায় ভালো করার জন্য একাডেমিক বিভিন্ন রিপোর্ট, বা রিডিং টাস্কগুলো পড়ুন, ভালো করে এবং অর্থসহ। এগুলো পড়তে থাকলে আপনি একটা ভালো আইডিয়া পেয়ে যাবেন যে  পরীক্ষায় কী রকম প্রশ্ন এসে থাকে এবং সেগুলোতে ভালো করার জন্য আপনি এখন যতটুকু পারদর্শী, সেই লেভেল থেকে আপনাকে আরও কতটা উন্নতি করা লাগতে পারে।
lকোনো কিছু ভালো করে বর্ণনা করে লিখতে গেলে, এমনকি স্পোকেন ইংলিশের ক্ষেত্রেও,  ভীত মজবুত থাকা চাই। সেটার জন্য টপিক অনুযায়ী ভোকাবুলারি চর্চা করা শুরু করে দিতে হবে। আইইএলটিএস এ যে ধরণের টপিক বেশি জোর দেওয়া হয়, বা যে টপিকগুলো বেশি আসে সেই সব টপিকের ভোকাবুলারি ভালো করে শিখে নিতে হবে। যেমন : পরিবেশ, শিক্ষা, চাকরি, ইত্যাদি।  আগে থেকেই দেখে নেবেন যে এই টপিকগুলোতে কোন কোন শব্দ গুলো ব্যবহার করা হচ্ছে এবং কোন কোন শব্দ এক সঙ্গে ব্যবহার করে বাক্যতে ব্যবহৃত হচ্ছে সেগুলো লিখে রাখুন এবং নিয়মিত চর্চা করুন।     
lকোনো রকম গ্রামার ও বানান ভুল করা যাবে না। চেষ্টা করতে হবে সাধারণ শব্দ ব্যবহার না করে
তার প্রতিশব্দ ব্যবহার করতে। একই শব্দ একাধিকবার ব্যবহার করার ফলে ভোকাবুলারির দুর্বলতা
প্রকাশ পায়, যা অনেক সময় মার্কস কমিয়ে দেয়। তাই নতুন শব্দ ব্যবহার করে লেখাকে আরও প্রাণবন্ত করে তুলতে হবে।

আরও পড়ুন