কলা খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য কমে না বাড়ে?

প্রকাশ: ২২ জুন ২০১৯     আপডেট: ২২ জুন ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

অনেকেরই কোষ্ঠাকাঠিন্যের সমস্যা আছে। এ ধরণের সমস্যায় যারা ভোগেন তাদের জীবন দুর্বিসহ হয়ে ওঠে। প্রচলিত আছে, কলা খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য কমে। আবার কেউ কেউ মনে করেন ফাইবারজাতীয় ফল খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য বেড়ে যায়।

পুষ্টিবিদদের মতে, কলা খেলে হজমশক্তি ভাল হয়। তখন কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যাও কমে। কারণ এতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে। আর ফাইবারই কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা কমাতে সাহায্য করে। 

একটি মাঝারি আকৃতির কলায় ৩ দশমিক ১ গ্রাম ফাইবার থাকে। কলা খেলে যে কোষ্ঠকাঠিন্য কমে এটা বিভিন্নভাবে প্রমাণিত। তবে কিছু কিছু গবেষণায় দেখা গেছে কলা খেলে কারও কারও কোষ্ঠকাঠিন্য বাড়ে। তবে সবার ক্ষেত্রে এটা ঠিক নয়।এটা ব্যক্তির শরীরের প্রতিরোধী ক্ষমতা উপর নির্ভর করে। 

কাঁচা ও পাকা –দুই কলাই উপকারী। কাঁচা কলা শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এটি খেলে বিপাকক্রিয়া ও হজমশক্তি বাড়ে।এতে থাকা ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য কমায়। আবার কোনও কোনও ক্ষেত্রে কাঁচা কলা ডায়ারিয়া প্রতিরোধও দারুণ কাজ করে। 

পাকা কলা খেলে যদি কারও কোষ্ঠকাঠিন্য বাড়ে তাহলে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন। যেমন-

১. একটা পাকা কলা ছোট ছোট করে কাটুন। এর সঙ্গে ১ চামচ মধু মিশিয়ে পানি দিয়ে ব্লেন্ড করুন। নিয়মিত এই মিশ্রণটি পান করুন। এতে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা অনেকটাই কমে যাবে। এছাড়া কলার সঙ্গে মধু মিশিয়ে প্রতিদিন খেতে পারেন।মধুতে থাকা ল্যাক্সাটিভ উপাদান কোষ্ঠকাঠিন্য কমাতে ভূমিকা রাখে।   

২.  কলার সঙ্গে পাকা পেঁপে মিশিয়ে ব্লেন্ড করে প্রতিদিন মিশ্রণটি খেতে পারেন। পেঁপেতে থাকা হজম সহায়ক উপাদান কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে বেশ কার্যকরী। সূত্র : স্টাইলক্রেজ