বুন্দেসলিগায় কমেছে ড্রিবল-ট্যাকল

প্রকাশ: ২২ মে ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: ফাইল

ছবি: ফাইল

করোনাভাইরাসের কারণে দু’মাস বন্ধ ছিল জার্মানির শীর্ষ পর্যায়ের লিগ ফুটবল। এরপর সতর্কতা অবলম্বন করে কর্তৃপক্ষ ফুটবল ফিরিয়েছে মাঠে। কিন্তু করোনার আতঙ্কে আক্রমণাত্মক ফুটবলের বদলে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে খেলার প্রবণতা বেড়েছে।

বুন্দেসলিগার ম্যাচের সার্বিক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, আগের চেয়ে ট্যাকল, ড্রিবলের মাত্রা অনেক কমে গেছে। যা থেকে  মনে করা হচ্ছে, ফুটবল ফিরলেও স্বস্তি ফেরেনি ফুটবলারদের মধ্যে।

মার্চে ফুটবল লকডাউনে যাওয়ার আগে জার্মান লিগে প্রতি ম্যাচে ট্যাকল হয়েছে ৩৩.৫ শতাংশ, তা এখন দাঁড়িয়েছে ৩০.৫। আগে প্রত্যেক ম্যাচে ড্রিবল হত ৩৮.৫ শতাংশ। এখন সেটা  ২৯ এ নেমেছে। আগের চেয়ে তাই প্রতিদ্বন্দ্বিতার ব্যাপার কমেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে এ পরিসংখ্যানে বায়ার্ন মিউনিখ কোচ হানস ফ্লিক চিন্তিত নন, ‘মনে রাখতে হবে, গত দুই মাস বলের সঙ্গে ফুটবলারদের কোন যোগ ছিল না। মাঠে অনুশীলন ও বাড়িতে অনুশীলনের মধ্যেও পার্থক্য বিস্তর। এগুলো দ্রুতই কেটে যাবে।’

এছাড়া ফ্লিক মনে করেন, লকডাউনে ফুটবলারদের ফিটনেসে কোন  সমস্যা হয়নি। মে’তে ৯০ মিনিটে একটি দল দৌড়েছে ১৪৩.৪ মাইল। লকডাউনের আগে যা ছিল ১৪৪.৪ মাইল। দু’মাসের স্থবিরতায় সেটা মাত্র ১.১ মাইল কমেছে।

বরুসিয়া ডর্টমুন্ড কোচের মতে, দীর্ঘদিন পরে মাঠে নামায় নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে কিছুটা সময় লাগবে। সকলেই এখন নিজেদের সুরক্ষিত রেখে ফুটবল খেলছে।