করোনাকালে ফিফার ১.৫ বিলিয়ন বরাদ্দ

প্রকাশ: ২৭ জুন ২০২০     আপডেট: ২৭ জুন ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

স্পোর্টস ডেস্ক

ছবি: ফাইল

ছবি: ফাইল

করোনায় মার্চ থেকে বন্ধ আন্তর্জাতিক ফুটবল। একই সময়ে স্থগিত হলেও জুন থেকে শুরু হয়েছে ইউরোপিয়ান চারটি দেশের লিগ। কিন্তু বৈশ্বিক মহামারির কারণে আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত ফুটবল দুনিয়া। করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর জন্য গত এপ্রিলে ১৫০ মিলিয়ন অর্থ সাহায্যের ঘোষণা দিয়েছিল ফিফা।

বৃহস্পতিবার ২১১টি সদস্য দেশের সাহায্যের জন্য ১.৫ বিলিয়ন বরাদ্দের অনুমোদনও দিয়েছে ফিফা। যাতে করে ফিফার অন্তর্ভুক্ত প্রতিটি দেশ পাওয়ার কথা ৫ লাখ ইউএস ডলার করে। এই পরিমাণ অর্থ বাংলাদেশও পাবে। জুলাইয়ে অনুদান দেওয়ার কথা থাকলেও করোনার কারণে আগেই সেই টাকা দিয়েছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। করোনাভাইরাসের প্রভাবে ফুটবলের যে ক্ষতি হয়েছে, সেটা পুষিয়ে নিতেই এমন সিদ্ধান্ত ফিফার।

এই অনুদান সঠিকভাবে যেন ব্যবহার হয়, সেদিকেও কড়া নজর থাকবে ফিফার। আর যেসব দেশ বেশি আর্থিক সংকটে ভুগছে, তাদের দিয়েই শুরু হবে এই অনুদান। ফিফার অনুদান ছাড়াও লোনও নিতে পারবে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলো। এজন্য ৪ মিলিয়ন লোনের জন্য আবেদন করতে পারবে সদস্য দেশগুলো। করোনার কারণে এই বরাদ্দ দিচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এই অর্থ নারী ফুটবলের জন্যও ব্যয় করার নির্দেশ দিয়েছে ফিফা।

অনুদান প্রসঙ্গে ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো বলেন, 'ক্লাব এবং ফেডারেশনগুলো খুবই খারাপ অবস্থায় আছে। অর্থ সংকটের কারণে বিশ্বের অনেক দেশেই ফুটবল পুনরায় শুরু হতে পারেনি। তাদের আমাদের সাহায্য করা প্রয়োজন।'