বসুন্ধরায় বেনজেমার সতীর্থ ভালবুয়েনা!

প্রকাশ: ২৯ জুন ২০২০     আপডেট: ২৯ জুন ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

সাখাওয়াত হোসেন জয়

বেনজেমার সঙ্গে তার এক সময়ের ফ্রান্স সতীর্থ ম্যাথিউ ভালবুয়েনা (সামনে)

বেনজেমার সঙ্গে তার এক সময়ের ফ্রান্স সতীর্থ ম্যাথিউ ভালবুয়েনা (সামনে)

ফ্রান্স, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, অস্ট্রেলিয়া, হন্ডুরাস ও ইরাকের জার্সিতে বিশ্বকাপ মাতানো ফুটবলারদের বায়োডাটা বসুন্ধরা ক্লাবে। বিশ্বকাপ খেলা এসব ফুটবলারের এজেন্টের সঙ্গে কথা চালাচালি চলছে। আপাতত যে কয়েকজন ফুটবলারের সিভি দেখেছেন ক্লাব কর্মকর্তারা, তাতে করে ফ্রান্সের হয়ে ২০১০ এবং ২০১৪ বিশ্বকাপ খেলা ম্যাথিউ ভালবুয়েনাকে পছন্দ তাদের। ৩৫ বছর বয়সী এ অ্যাটাকিং মিডফিল্ডারের এজেন্টের সঙ্গে কথাবার্তা অনেক দূর গড়িয়েছে।

সবকিছু ঠিক থাকলে রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলা কোস্টারিকান ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিনড্রেসের বিকল্প হিসেবে বসুন্ধরা কিংসে আসছেন ম্যাথিউ। যদিও ক্লাবের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এখনও চূড়ান্ত কিছু বলতে নারাজ। চুক্তি হওয়ার পর আনুষ্ঠানিকভাবে জানাতে চান। বিশ্বস্ত সূত্রের কথা অনুযায়ী, বর্তমানে রিয়াল মাদ্রিদে খেলা করিম বেনজেমার ফ্রান্স সতীর্থ ভালবুয়েনাকেই আনতে চাইছে ফেডারেশন কাপের চ্যাম্পিয়নরা।

করোনাভাইরাসের কারণে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া বসুন্ধরা নতুন করে কলিনড্রেসের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেনি। অক্টোবরে এএফসি কাপের জন্য তাই কলিনড্রেসের মানের একজন ফুটবলারের খোঁজে নামে বসুন্ধরা। ক্লাব কর্তাদের মূল লক্ষ্যই হলো বিশ্বকাপে খেলা কোনো ফুটবলারকে আনতে। বিশ্বমানের বিদেশি নেওয়ার জন্য এএফসির কাছে উইন্ডো চালু করতে চিঠি দিয়েছিল বাংলাদেশের ক্লাবটি। সবকিছু বিবেচনা করে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন উইন্ডো খুলে দেয়।

তাই শুধু এএফসি কাপই নয়, আগামী মৌসুমের জন্যও একজন বিশ্বকাপ খেলা ফুটবলারকে চাইছে বসুন্ধরা। শনিবারই সবকিছু চূড়ান্ত হওয়ার কথা ছিল। হাতে সময় থাকায় আরও এক সপ্তাহ দেখতে চাইছে বসুন্ধরা। অর্থ নিয়ে দরকষাকষির কারণেই আরেকটু অপেক্ষা করছে তারা। আর বসুন্ধরার মূল টার্গেট এখন ভালবুয়েনা। বসুন্ধরা ক্লাব সভাপতি ইমরুল হাসানেরও চাওয়া বিশ্বমানের কোনো ফুটবলার, 'সামনে আমাদের এএফসি কাপ। তার আগেই আমরা ভালোমানের বিদেশি ফুটবলার আনতে চাচ্ছি। কলিনড্রেসের মতো বিশ্বকাপে খেলা ফুটবলারই আমাদের টার্গেট। কয়েকজনের সঙ্গে কথাবার্তাও চলছে। হয়তো ভালো একটা কিছু শুনতে পারবেন।'

ফ্রান্সের জার্সিতে একবারই বিশ্বকাপ খেলেছেন করিম বেনজেমা। ২০১৪ বিশ্বকাপের পরের বছরই যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়েছিলেন বেনজেমা। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল, সেক্স টেপ বানিয়ে ব্ল্যাকমেইল করেছেন। তবে আসল কাহিনি ঘটিয়েছিলেন সেই সময় বেনজেমার ফ্রান্স সতীর্থ ভালবুয়েনা। ফ্রান্সের এক ম্যাচ উপলক্ষে জাতীয় দলের সব ফুটবলার একসঙ্গে হোটেলে ওঠার পর ঘটনাটি ঘটেছিল। ভালবুয়েনা একটি সেক্স টেপ বানান, যেটি কিছু ব্ল্যাকমেইলারের হাতে চলে গিয়েছিল। সেই সময় লিঁওতে খেলা ভালবুয়েনাকে এরপর ফাঁদে ফেলে হুমকি দেওয়া হয়েছিল।

২০১৫ সালের জুনের ওই ঘটনার জন্য বেনজেমা দোষারোপ করেছিলেন ভালবুয়েনাকে। সেই বেনজেমার সতীর্থকে দেখা যেতে পারে বাংলাদেশের ফুটবলে। ৩৫ বছর বয়সী ভালবুয়েনা বর্তমানে গ্রিক ক্লাব অলিম্পিয়াকোসের হয়ে খেলছেন। ক্লাবটির জার্সিতে ইতোমধ্যে ২১ ম্যাচে ৬ গোলও করেছেন তিনি। ফ্রান্সের জার্সিতে ৫২ ম্যাচে ৮ গোল করেছেন ভালবুয়েনা।