ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

নারীর স্বাস্থ্য রক্ষায় ভিটামিন ডি

নারীর স্বাস্থ্য রক্ষায়  ভিটামিন ডি

.

 লে. কর্নেল ডা. নাসির উদ্দিন আহমদ

প্রকাশ: ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩ | ০০:১৫ | আপডেট: ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১৫:৪৬

অনেকেই মা হতে পারছেন না ভিটামিন ডি-এর অভাবে। মায়ের জরায়ুতে যখন নতুন জীবন নেমে আসে তখন এই ভিটামিনের ঘাটতি অনেক গুণ বাড়িয়ে দেয় প্রি-একলামশিয়া, গর্ভকালীন ডায়াবেটিস এবং ব্যাকটেরিয়াল ভ্যাজাইনোসিস। এটি বাড়িয়ে দেয় সিজারিয়ান অপারেশনের হার। এর অভাবে জরায়ুর ভেতর বৃদ্ধি ব্যাহত হয়, বাচ্চা হয় খর্বাকৃতির, হাড় গড়ে ওঠে উনুপাঁজুরে। জন্ম নেওয়া শিশুটির হতে পারে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি, হতে পারে খিঁচুনি। টাইপ-১ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি তো রয়েছেই। 
কিছু কিছু রোগ এমন আছে যেসব রোগে শরীরের রোগ প্রতিরোধক কোষ ধ্বংস করতে থাকে; নিজস্ব কোষকে যেমন রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস, মাল্টিপলস ক্লেরোসিস। এ ব্যাধিগুলোকে বলা হয় অটো ইমিউন ব্যাধি। ভিটামিন ডি-এর অভাবে এই রোগগুলো বেশি হয়ে থাকে।
ভিটামিন ডি ক্যান্সার প্রতিরোধে ভূমিকা নেয়। বিশেষত স্তন, প্রোস্টেট, জরায়ু, যোনি এবং বৃহদান্ত্রের ক্যান্সার প্রতিরোধে এর ভূমিকা অনন্য। ৭০ শতাংশ স্তন ক্যান্সার আক্রান্ত নারী ভিটামিন ডি-এর ঘাটতির শিকার।
যদি ডিম্বাশয়ে অনেক সিস্ট থাকে এবং এর সঙ্গে আরও কিছু প্রাণ রাসায়নিক জটিলতা বিদ্যমান থাকে তাকে বলা হয় পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম। সঙ্গে স্থূলতা, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, বন্ধ্যত্ব সম্মিলিতভাবে অবস্থান করতে পারে। এ অবস্থায় ইনসুলিনের কার্যকারিতা কমে যায়, ক্ষেত্রবিশেষ হরমোন জটিলতায় নারী দেহে আসতে থাকে অবাঞ্ছিত লোম। এ রোগের সঙ্গে ভিটামিন ডি-এর ঘাটতি যোগসূত্রতা খুঁজে পেয়েছেন বর্তমান সময়ের গবেষকরা।
সূর্য যখন তার তেজ হারাতে থাকে বিশেষত শীতের মৌসুমে, তখন অনেকেই বিষণ্নতায় ভোগেন। তাদের আচার-আচরণে আসে পরিবর্তন। মানসিকভাবে তারা মুষড়ে পড়েন। ক্লান্তি আর অবসাদ ভর করে তাদের ওপর। চেপে বসে ক্লান্তি। এটাকে বলে সিজনাল অ্যাফেক্টিভ ডিসঅর্ডার। দেখা যায় শীতের নিষ্প্রভ আলোতে ভিটামিন ডি-এর ঘাটতি হয় আর এটি এই রোগের জন্য দায়ী।
যখন সর্বাঙ্গে ব্যথা ওষুধ দেব কোথা– এমন এক অবস্থা বিরাজমান, তখন চিকিৎসকরা চিন্তায় পড়ে যান। পেশিতে পেশিতে ব্যথা কিন্তু কোনো জুতসই কারণ নেই। এমন সব নারীর মধ্যে গবেষণায় দেখা গেছে, শতকরা ৯৩ জনেরই ভিটামিন ঘাটতি।
রজঃনিষ্কৃতির পর নারীদের ইস্ট্রোজেন হরমোনের ঘাটতি দেখা দেয়। তখন থেকেই হাড় ক্ষয় হওয়ার প্রবণতা বেড়ে যায়। তখন এসব নারীর জন্য সরবরাহ করতে হয় অতিরিক্ত পরিমাণে ভিটামিন ডি আর ক্যালসিয়াম।
লেখক: মেডিসিন স্পেশালিস্ট ও এন্ডোক্রাইনোলজিস্ট, সিএমএইচ, ঢাকা।

আরও পড়ুন

×