সরকারি হিসাবে ডেঙ্গুতে মারা গেছে ৭৫ জন

প্রকাশ: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

সরকারি হিসাবে ডেঙ্গুতে মৃত্যুর মিছিলে আরও ৭ জন যুক্ত হলো। এ নিয়ে চলতি বছর ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা ৭৫ জনে দাঁড়াল। 

সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) গঠিত 'ডেথ রিভিউ' কমিটি ডেঙ্গুতে মৃত্যুর ঘটনা পর্যালোচনা করে সরকারিভাবে তা ঘোষণার দায়িত্ব পালন করছে। সারাদেশে হাসপাতালে ডেঙ্গুতে মৃত্যু হলে নমুনা সংগ্রহ করে তা আইইডিসিআর গঠিত কমিটির কাছে পাঠানো হয়। এর আগে কমিটি ৬৮ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছিল।

গণমাধ্যমে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আইইডিসিআরে ডেঙ্গু সন্দেহে ২২৪টি মৃত্যুর তথ্য পাঠানো হয়েছে। সেগুলোর মধ্যে ১২৬টি মৃত্যু পর্যালোচনা করে ৭৫টি মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে অন্য ৫১ জনের মৃত্যু কী কারণে হয়েছে, তা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়নি। তবে 'ডেথ রিভিউ' কমিটির কার্যক্রম নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বিশেষজ্ঞরা অভিযোগ করেছেন, ডেথ রিভিউ কমিটি পর্যালোচনার নামে ডেঙ্গুতে মৃত্যু আড়াল করতে চাইছে।

এদিকে সোমবার আবারও ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। তবে নতুন করে কারও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার নতুন করে আরও ৪৬১ জন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। গত রোববার এ সংখ্যা ছিল ৪৩০ জন। সকাল আটটা থেকে পরদিন সকাল আটটা পর্যন্ত মোট চব্বিশ ঘণ্টা ধরে প্রতিদিন হাসপাতালে নতুন করে ভর্তি রোগীর তালিকা করা হয়। সে অনুযায়ী গত চব্বিশ ঘণ্টায় ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ১৩৪ জন এবং ঢাকার বাইরে বিভিন্ন বিভাগ ও জেলা হাসপাতালে ৩১৮ জন রোগী ভর্তি হয়েছে। চলতি বছর এ পর্যন্ত ৮৫ হাজার ২৮৮ জন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। তাদের মধ্যে ৮৩ হাজার ৪৬ জন চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল ছেড়েছে। 

দেশের সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ২ হাজার ১৮ জন রোগী ভর্তি আছে। তাদের মধ্যে রাজধানীর ৪১ সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ৮৬১ জন এবং ঢাকার বাইরে বিভাগীয় ও জেলা সদর হাসপাতালে ১ হাজার ১৫৭ জন চিকিৎসাধীন।