আগামী ৭ এপ্রিল থেকে করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নির্দেশিকা অনুযায়ী কোভিড-১৯ টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া থেকে ৮ সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ দিলে ভালো হবে। সে অনুযায়ী দ্বিতীয় ডোজ টিকা দেব আমরা।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে এক সভা শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের একথা বলেন। খবর ইউএনবির

মন্ত্রী বলেন, চুক্তি অনুযায়ী তিন কোটি ডোজ টিকার মধ্যে প্রথমে ৫০ লাখ, উপহার হিসেবে ২০ লাখ, সোমবার রাতে এসেছে ২০ লাখ। সেরাম থেকে এই মাসে ৫০ লাখ ডোজ পাওয়ার কথা থাকলেও সোমবার ২০ লাখ ডোজ পেয়েছি। ঘাটতি যেটা আছে, আমরা তাদের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা বলছে আগামী মাসে টিকা বাড়িয়ে দেবে।

তিনি বলেন, সারা দেশে এক হাজার ১০টি কেন্দ্রে প্রায় ৩ হাজার বুথে টিকাদান কর্মসূচি চলছে। টিকাদান কার্যক্রম সুন্দরভাবে হচ্ছে।

নারীদের আরও বেশি টিকা নেওয়ার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষকদের টিকা দ্রুত দেওয়া হবে। এমনিতেই শিক্ষকরা বয়স অনুযায়ী দ্রুত পাবেন। যাদের বয়স ১৮ থেকে ৪০ এর মধ্যে সেসব শিক্ষকরা পাবেন। তবে বয়স ১৮ এর নিচে কোনো শিক্ষক টিকা পাবেন না। ১৮ নিচে শিক্ষার্থীরাও টিকা পাবেন না। তাদের বিষয়ে সরকার যে সিদ্ধান্ত দেবে সেভাবে টিকা দেওয়া হবে।

এদিকে, দেশব্যাপী চলমান টিকাদান কর্মসূচিতে সারাদেশে আরও দুই লাখ ২৫ হাজার ২৮০ জন টিকা নিয়েছেন। যাদের মধ্যে পুরুষ এক লাখ ৩৯ হাজার ৭৮০ জন এবং নারী ৮৫ হাজার ৫০০ জন।

মন্তব্য করুন