প্রযুক্তির বাইরে থাকা সাধারণ মানুষকে করোনাভাইরাসের টিকার আওতায় আনতে বিনামূল্যে অনলাইনে নিবন্ধন করে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে স্কয়ার টয়লেট্রিজের ব্র্যান্ড সেপনিল। সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে সেপনিল সুরক্ষা ক্যারাভানের মাধ্যমে এই সেবা দিচ্ছে। প্রতিদিনই সেপনিল সুরক্ষা ক্যারাভান দেশের বিভিন্ন স্থানে গিয়ে ইন্টারনেট সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের টিকার নিবন্ধন করে দেয়ার পাশাপাশি টিকা কার্ডও বিনামূল্যে প্রিন্ট করে দিচ্ছে। এতে করে সাধারণ মানুষের মধ্যে করোনা টিকার নিবন্ধন ও টিকা নিতে আগ্রহ বাড়ছে।

উদ্যোগ সম্পর্কে স্কয়ার টয়লেট্রিজের হেড অব মার্কেটিং ড. জেসমিন জামান বলেন, আমরা বিশ্বাস করি, করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষার পাওয়ার আমাদের হাতেই আছে। এজন্য সবার মধ্যে সচেতনতা জরুরি। করোনাভাইরাস নিয়ে আমরা সবাই যদি সচেতন হই, টিকা নিই, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি, তাহলে এর ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পাবো। আর এজন্যই আমরা সেপনিল সুরক্ষা ক্যারাভান কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। সারাদেশের যেসব মানুষ ইন্টারনেট সেবার বাইরে আছেন, তাদেরকে টিকার আওতায় আনতে বিনামূল্যে নিবন্ধন করে ফ্রি টিকা কার্ড প্রিন্ট করে দিচ্ছি। পাশাপাশি মানুষদেরকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে নিরাপদ থাকতে করণীয়গুলো সম্পর্কেও সচেতন করছি। সেপনিল সুরক্ষা ক্যারাভানের মাধ্যমে প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত টিকার জন্য নিবন্ধন করা যাচ্ছে। এই সময়ের মধ্যে প্রতিদিনই কয়েকশ’ মানুষ নিবন্ধন করছেন।

প্রযুক্তির বাইরে থাকা সাধারণ মানুষ বিনামূল্যে টিকার নিবন্ধন করতে পেরে খুব খুশি। নিবন্ধনের পাশাপাশি সুরক্ষা ক্যারাভান থেকে সেপনিল-এর সুরক্ষা সামগ্রীও বিশেষ মূল্যে বিক্রি হচ্ছে। দেশব্যাপী পরিচালিত স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের এই উদ্যোগ ইতোমধ্যে সবার কাছে প্রশংসিত হয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি