ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

সুদানে আটকে পড়া যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের কণ্ঠে উদ্বেগ

সুদানে আটকে পড়া যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের কণ্ঠে উদ্বেগ

খার্তুম বিমানবন্দরের টারমার্কে আগুন আর ধোঁয়া দেখা যায় কয়েকদিন আগে

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৩ এপ্রিল ২০২৩ | ০৭:১০ | আপডেট: ২৩ এপ্রিল ২০২৩ | ০৭:১০

সুদান থেকে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়া হলেও আটকা পড়েছেন যুক্তরাজ্যের কিছু নাগরিক। তাদের মাঝে হতাশা ও উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

আজ রোববার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে শনিবার অনুষ্ঠিত এক জরুরি সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সফর সংক্ষিপ্ত করে লন্ডনে ফিরেছেন।

তবে সুদানে আটকে পড়া যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের সরিয়ে নিতে কী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে সে বিষয়ে এখনও পরিষ্কারভাবে কিছু জানা যায়নি। এ অবস্থায় আটকে পড়া নাগরিকেরা বিমান যোগাযোগ না থাকায় উদ্বেগ ও হতাশা প্রকাশ করেছেন।

খার্তুম সফররত ইমান আবু গার্গা বলেন, তিনি ও তার দুই সন্তানের নাম নিবন্ধন করেছেন, কিন্তু তারপর থেকে কিছুই হচ্ছে না। তিনি অভিযোগ করেন, 'কোনো সময়সীমা সম্পর্কে আমাদের ধারণা নেই। কী হচ্ছে তাও জানি না। খার্তুম বিমানবন্দর বাদে অন্য কোথাও থেকে আমাদের নেয়া হবে? আমরা কি সড়কপথে যাচ্ছি? এটা হতাশাজনক যে কেউ যোগাযোগ করেনি।'

যুক্তরাজ্যের আরেকজন নাগরিক বিবিসিকে বলেন, তার কাছে মনে হচ্ছে তিনি ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক ‘সম্পূর্ণ পরিত্যক্ত’।

সুদানের সেনাবাহিনীর এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সেনাবাহিনীর প্রধান ফাত্তাহ আল-বুরহান বিদেশিদের সরিয়ে নেওয়ার নিরাপদ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে রাজি হয়েছেন।

যুক্তরাজ্য সরকার বলছে, খার্তুমে থাকা কূটনীতিক ও যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের সহায়তা করতে সম্ভাব্য সব কিছু করাই হচ্ছে।

এদিকে, স্পেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, তারা তাদের নাগরিকদের সরিয়ে আনতে ছয়টি বিমান জিবুতিতে পাঠিয়েছেন।

উত্তর আফ্রিকার দেশ সুদানে সেনাবাহিনী ও প্যারামিলিটারি র‍্যাপিড সাপোর্ট ফোর্সের (আরএসএফ) মধ্যে ক্ষমতার লড়াইয়ে এ পর্যন্ত চার শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে এ সংখ্যা আরও বেশি বলে মনে করা হচ্ছে। হাজার হাজার মানুষ আহত হয়েছে এবং চিকিৎসা কেন্দ্রগুলো এতে করে হিমশিম খাচ্ছে। খার্তুম ছাড়া পশ্চিমাঞ্চলে দারফুরেও ব্যাপক লড়াই হচ্ছে।

আরও পড়ুন

×