হৃদরোগ আক্রান্ত হয়েও যাত্রীদের নিরাপদে নামালেন চালক

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯     আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

বুকের বাম পাশে তীব্র ব্যথা। নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসছে। তারপরও চালকের চিন্তা ছিল যাত্রীদের নিরাপত্তার।এ কারণে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েও ওই চালক নিরাপদে রাস্তার পাশে দাঁড় করালেন বাস। তারপরই ঢোলে পড়লেন মৃত্যুর কোলে।

সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের চেন্নাইয়ের মধুরাভোয়াল এলাকায়।পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার সকালে চেন্নাইয়ের কোয়ামবেড়ু থেকে কাঞ্চিপুরম রুটে এমটিসি’র একটি বাস চালাচ্ছিলেন চালক সর্বেশ্বরণ। বাসটি সকাল সাড়ে ৮ টায় মধুরাভোয়াল বাজারে পৌঁছলে চালক হৃদরোগে আক্রান্ত হন। এ সময় তিনি অসহ্য যন্ত্রণার মধ্যে থাকলেও বাসটি নিরাপদে রাস্তার পাশে পার্ক করেন।ওই সময় বাসটিতে ৫০ জন যাত্রী ছিলেন। বাসটি থামানোর পর শরীর ভাল লাগছে না বলে ওই চালক কন্ডাক্টরকে ডেকে যাত্রীদের নেমে যেতে বলেন। সবাই নেমে গেলে কন্ডাক্টরের সাহায্যে সর্বেশ্বরণ হাসপাতালে পৌঁছান। কিন্তু চিকিৎসা নেয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়।

বাসের যাত্রীরা সর্বেশ্বরণের পরিবারের লোকজন না আসা পর্যন্ত হাসপাতালেই অপেক্ষা করেন। চালক কিভাবে নিজের জীবন দিয়ে তাদেরকে বাঁচিয়েছেন তা পুলিশকে জানিয়েছেন যাত্রীরা।

ওই চালকের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে পুলিশ। অতিরিক্ত কাজের চাপ নাকি মানসিক চাপ থেকে সর্বেশ্বরণ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন তা তদন্ত করা হচ্ছে।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া