৫০ ডিগ্রি ছাড়াল রাজস্থানের তাপমাত্রা

প্রকাশ: ১১ জুন ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

তীব্র গরমে গরুর গাড়িতে পানি বহন করে নেওয়া হচ্ছে ভারতের একটি গ্রামে- সিএনএন

ভারতজুড়ে গরমের দাপট। সবথেকে ভয়ানক তাপপ্রবাহের সাক্ষী দেশ।

উত্তর ভারতের চারটি শহরের তাপমাত্রা এবার রেকর্ড ছুঁয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

নয়াদিল্লি, রাজস্থানের চুরু, উত্তরপ্রদেশের বান্দা ও এলাহাবাদে অস্বাভাবিক তাপমাত্রায় জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। 

এই শহরগুলিতে পারদ চড়েছে ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা তারও ওপরে। চুরুর তাপমাত্রা গত সপ্তাহেই ৫০ ডিগ্রি ছাড়িয়েছিল। বছরের এই সময়ে তাদের স্বাভাবিক তাপমাত্রার থেকে যা ৮ ডিগ্রি বেশি।

সোমবারের হিসাব বলছে, বান্দায় তাপমাত্রা ৪৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এলাহাবাদে ৪৮.৯ ডিগ্রি। নয়াদিল্লি ৪৮ ডিগ্রি। জুনের হিসেবে যা সর্বোচ্চ।

তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি বা তার বেশি হলে এবং সেই পরিস্থিতি দুইদিন চললে তাক তাপপ্রবাহ বলা হয়। আর ৪৭ ডিগ্রির ওপরে তাপমাত্রা হলে তাকে ‘তীব্র' আখ্যা দেওয়া হয়।

এনডিটিভি বলছে, গত কয়েক বছরে ঘনঘন তাপপ্রবাহের দেখা মিলেছে। ২০০৪ সাল থেকে ১৫টি উষ্ণতম বছরের মধ্যে ১১টির দেখা মিলেছে। গত বছর ছিল ১৯০১-এর পর থেকে ষষ্ঠ উষ্ণতম বছর। ১৯০১ সাল থেকেই আবহাওয়ার রেকর্ড রাখা শুরু হয়।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, পরিবেশের পরিবর্তনের চিহ্ন এটা। বিশ্বব্যাপী জলবায়ুর এহেন আচরণ লক্ষ করা যাচ্ছে।

পরিবেশবিদরা ভারতকে পরামর্শ দিচ্ছেন, একটি নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করে এই তাপপ্রবাহের সঙ্গে লড়াই করার জন্য। প্রতি বছর  অসংখ্য মানুষ মারা যান এর প্রকোপে।

২০১০ সাল থেকে ভারতে ৬০০০-এরও বেশি মানুষ মারা গেছেন গরমের কবলে পড়ে। গত বছর লোকসভায় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ তথ্য জানিয়েছিল‌েন।

সর্বশেষ মঙ্গলবার চারজন কেরল এক্সপ্রেসে উঠে ঢলে পড়েছেন মৃত্যুর কোলে। রেলওয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, অত্যধিক গরম এই ব্যক্তিদের মৃত্যুর অন্যতম কারণ।

বিষয় : ভারত রাজস্থান