এনআরসি থেকে বাদ পড়ার প্রতিবাদে আসামে বনধ

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের আসামে চূড়ান্ত জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) থেকে ১৯ লাখ মানুষের নাম বাদ পড়ার প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে ১২ ঘণ্টার বনধ চলছে। 

এই বনধ পালন করছে আসাম কোচ রাজবংশী সম্মিলনী। খবর যুগশঙ্খের।

রাজ্যজুড়ে বনধের ডাক দেওয়া হলেও মনে করা হচ্ছে, এই বনধের প্রভাব কেবল পশ্চিম আসামের ৫ থেকে ৬টি জেলাতেই পড়বে। 

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাজধানী গৌহাটিতে বনধের প্রভাব সেভাবে পড়েনি বলে জানা গেছে। 

চূড়ান্ত নাগরিকপঞ্জিতে স্থান পায় ৩ কোটি ১১ লাখ মানুষ, আর বাদ পড়ে ১৯ লাখ। এরপরই যাদের নাম নেই তারা ক্ষোভে ফেটে পড়ে।

তবে কেন্দ্র বলছে, যাদের নাম চূড়ান্ত নাগরিক তালিকায় স্থান পাবে না সমস্ত আইনি প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের এখনই বিদেশি ঘোষণা করা যাবে না। 

এনআরসির বাইরে থাকা প্রতিটি ব্যক্তি বিদেশি ট্রাইব্যুনালে আবেদন করতে পারবেন এবং আবেদন করার সময়সীমা ৬০ থেকে বাড়িয়ে ১২০ দিন করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে, তালিকা থেকে বাদ পড়াদের পক্ষে যুক্তি শোনার জন্য পর্যায়ক্রমে কমপক্ষে এক হাজার ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হবে। ১০০টি ট্রাইব্যুনাল ইতোমধ্যেই খুলে দেওয়া হয়েছে এবং আরও ২০০টি স্থাপন করা হবে। 

ট্রাইব্যুনালে কেউ মামলা হারলেও তারা উচ্চ আদালত এবং তারপরে সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন করতে পারবেন।