শাখারভ পুরস্কার পেলেন উইঘুর সম্প্রদায়ের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত শিক্ষাবিদ

প্রকাশ: ২৫ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ইলহাম তোহতি

চীনের উইঘুর সম্প্রদায়ের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ইলহাম তোহতিকে সর্বোচ্চ মানবাধিকার পুরস্কারে ভূষিত করেছে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট। 

সিনঝিয়াংয়ে উইঘুর মুসলিমদের স্বায়ত্ত্বশাসন নিয়ে কথা বলায় ২০১৪ সালে বিচ্ছিন্নতাবাদের অভিযোগে ৪৯ বছর বয়সী এ শিক্ষাবিদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয় দেশটি। 

তোহতি বছরের পর বছর ধরে উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর চীন সরকারের কড়াকড়ির সমালোচনা করে এসেছেন। খবর বিবিসির।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) স্বাধীন চিন্তার জন্য তোহাতিকে ২০১৯ সালের শাখারভ পুরস্কারের জন্য বেছে নিয়েছে। 

বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে ইইউ তাকে পুরস্কৃত করার ঘোষণা দেয়।

বিবৃতিতে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট ডেভিড সাসোলি বলেছেন, তোহতির কণ্ঠে ধ্বনিত হয়েছে সম্প্রীতির সুর। তাকে এ পুরস্কার দিয়ে আমরা চীনা সরকারের কাছে তাকে মুক্তি দেওয়ার পাশাপাশি সে দেশের সংখ্যালঘুদের অধিকারকে সম্মান প্রদর্শনের জোরালো আহ্বান জানাচ্ছি।

কিন্তু ইইউ এর এ পদক্ষেপে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, আপনারা যে পুরস্কারের কথা বলছেন তা আমরা জানি না। আমরা যা জানি তা হচ্ছে, তোহতি একজন অপরাধী। তাকে চীনের আদালত আইনানুযায়ী সাজা দিয়েছেন। সব পক্ষই চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয়সহ বিচার বিভাগীয় স্বাধীনতাকে সম্মান প্রদর্শন করবে এবং সন্ত্রাসীদের ঔদ্ধত্যকে বাড়ানোর পদক্ষেপ নেবে না বলেই চীন আশা করে।