ঢাকা সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪

ইতালির বিখ্যাত টুপি বরসালিনো

ইতালির বিখ্যাত টুপি বরসালিনো

ছবি: ডয়েচে ভেলে

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০২ অক্টোবর ২০২৩ | ০২:৫৪ | আপডেট: ০২ অক্টোবর ২০২৩ | ০২:৫৪

হ্যাটের জগতে বিখ্যাত নাম ‘বরসালিনো'৷ জনি ডেপ, কেইট মস ও জাস্টিন টিম্বারলেকসহ অনেকে ইতালির এই বিখ্যাত ব্র্যান্ডের হ্যাট পরেছেন৷ নতুন প্রজন্মকে আগ্রহী করতে নতুন একজন ক্রিয়েটিভ ডাইরেক্টর নিয়োগ দিয়েছে এই ব্র্যান্ড৷

চওড়া-ধার, রুচিসম্মত এবং সবাই পরেন৷ বরসালিনো হ্যাট বা টুপি এমন এক স্টাইল আইকন, যা চলচ্চিত্র ও তার বাইরে বেশ পরিচিত৷

১৬০ বছরের বেশি সময় ধরে উত্তর ইতালির আলেসান্দ্রিয়ায় এই টুপি তৈরি হচ্ছে৷ সেখানে এমনকি উনিশ শতকের কিছু যন্ত্রও আছে৷ কোম্পানির ক্রয় ব্যবস্থাপক আলেসান্দ্রো মোর্তারিনো জানান, ‘এখানে কোনো পরিবর্তন হয়নি৷ আমরা একই যন্ত্র ও কৌশল ব্যবহার করছি৷ বরসালিনো হ্যাট হাতে তৈরি৷ প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে আমরা আমাদের জ্ঞান হস্তান্তর করছি৷ এটাই আমাদের ব্র্যান্ড মূল্য৷'

মধ্যবিত্তের জন্য টুপি বানাতে ১৮৫৭ সালে কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন জুসেপে বরসালিনো৷ ১৯১৪ সাল নাগাদ কোম্পানির কর্মীর সংখ্যা আড়াই হাজার পেরিয়ে গিয়েছিল৷ বরসালিনোর অবস্থা যখন তুঙ্গে ছিল, তখন প্রায় সব পুরুষেরা প্রতিবছর তৈরি হওয়া ২০ লাখের বেশি টুপির একটি পরতেন৷

বর্তমানে সেই সংখ্যা কমে ৯০ হাজারে ঠেকেছে৷ একটি বরসালিনো টুপি তৈরি সম্পূর্ণ হওয়ার আগে একে আকার দিতে হয়, রং করতে হয়, আগুনে ঝালিয়ে নিতে হয়, মোম দিতে হয় ও সবশেষে সেলাই করতে হয়৷ ৫২ ধাপের পুরো প্রক্রিয়া শেষ হতে সাত সপ্তাহ লাগে৷

কোম্পানির কর্মী রব্যার্তা চম্পি বলেন, ‘বরসালিনো টুপির বিশেষত্ব হচ্ছে, পশমি কাপড়ের উপর ধীরে ধীরে কাজ করা হয়৷ সে কারণে হ্যাটটি সুন্দর ও নরম হয়৷ আমি পশমি কাপড় নিয়ে শুরুর দিকে কাজ করি, পরে যা বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর টুপিগুলোর একটি হয়ে ওঠে৷ এটা আপনাকে দারুণ গর্বিত করে৷'

বরসালিনোর সাফল্য তুলে ধরতে আলেসান্দ্রিয়ায় একটি মিউজিয়ামও প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে৷ এর উদ্বোধনে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন অ্যান্থনি ডেলোন ও পল বেলমন্ডো৷ তারা ১৯৭০ সালে মুক্তি পাওয়া ‘বরসালিনো' মুভিতে অভিনয় করা দুজন অভিনেতার ছেলে৷

‘বরসালিনো' এবং ইনগ্রিড ব্যার্গমান ও হামফ্রি বৌগাট অভিনীত ‘কাসাব্লাংকা' মুভির কিছু দৃশ্য মিউজিয়ামে দেখানো হয়৷ আরও আছে কোম্পানির ১৬৬ বছরের ইতিহাসের অংশ এমন কিছু হ্যাট৷ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসের জন্য তৈরি হ্যাটের মডেলও সেখানে রাখা আছে- যেমন সরোস্কি, ভ্যালেন্টিনো এবং ভারসাচি৷

মিউজিয়ামের গাইড ডানিয়েল বেতেল্লা বলেন, ‘বরসালিনো একটি ইটালীয় আইকন৷ ফিয়াট ৫০০ ও ভেসপার মতো৷ আপনি এটার ধার উঁচিয়ে বা নামিয়ে পরতে পারেন৷ আপনার যেভাবে ভালো লাগে৷ হ্যাট পরার পর আপনি যা হতে চান, হতে পারবেন৷'

নতুন প্রজন্মকে আগ্রহী করতে নতুন একজন ক্রিয়েটিভ ডাইরেক্টর নিয়োগ দেয়া হয়েছে৷ তার নাম ইয়াকোপো পলিটি৷ তিনি নতুন মডেলের নকশা করছেন৷ এর মধ্যে আছে বেসবল ক্যাপ, বিনি এবং নতুন করে তৈরি একটু বেশি চওড়া ধারের ক্ল্যাসিক হ্যাট৷এসব কারণে মানুষ হ্যাটের প্রতি আবারও আগ্রহী হচ্ছে বলে জানান কোম্পানির ক্রয় ব্যবস্থাপক৷

ক্রয় ব্যবস্থাপক আলেসান্দ্রো মোর্তারিনোর দাবি, ‘আমার মনে হয় তরুণ প্রজন্ম আবারও হ্যাট পরার আনন্দ আবিষ্কার করছে৷ তাই ফ্যাশন জগতে বরসালিনো ব্র্যান্ড আবার ফিরে আসছে৷'

সূত্র: ডয়েচে ভেলে

আরও পড়ুন

×