কেনিয়ার লামু কাউন্টিতে মার্কিন সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে জঙ্গি সংগঠন আল শাবাব। আমেরিকা ও কেনিয়ার যৌথ সেনা এই ঘাঁটিতে থাকে। 

রোববার কেনিয়ার প্রতিরক্ষা বাহিনী জানিয়েছে, ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মান্দা বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালিয়ে নিরাপত্তা লঙ্ঘনের চেষ্টা করা হয়েছিল। তবে জঙ্গিদের প্রতিহত করা হয়েছে। চার জঙ্গির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।  

লামু কাউন্টির কমিশনার ইরুঙ্গু মাচিয়ারা হামলার কথা স্বীকার করে বলেছেন, একটি হামলার ঘটনা ঘটেছে। তবে জঙ্গিদের জবাব দেওয়া হচ্ছে। খবর আল জাজিজার 

এদিকে জঙ্গি গোষ্ঠী আল শাবাবের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, তারা শত্রুপক্ষের ঘাঁটিতে প্রবেশ করেছে এবং সফলভাবে সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে। ওই সেনা ঘাঁটির একটি অংশ তারা দখল করে রেখেছে।

হামলায় আমেরিকা এবং কেনিয়ার অনেক সেনা হতাহত হয়েছে বলেও দাবি করেছে আল শাবাব। 

আল শাবাবের মূল ঘাঁটি সোমালিয়ায়। কিন্তু কয়েক বছর আগে সে দেশের রাজধানী মোগাদিসু থেকে উৎখাতের পর থেকেই সশস্ত্র জঙ্গি হামলা বাড়িয়েছে তারা। 

এই জঙ্গি গোষ্ঠীকে উৎখাতের সময় সোমালিয়ার প্রতিবেশী দেশ কেনিয়াও প্রচুর সেনা পাঠিয়েছিল। সে কারণে কেনিয়াতেও একাধিকবার হামলা চালিয়েছে আল শাবাব।

গত বছর কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে রিভারসাইড কমপ্লেক্স নামে একটি ভবনে আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছিল জঙ্গি সংগঠনটি। ওই হামলায় নিহত হয়েছিলেন ২১ জন। 

যাত্রীবাহী বাসে হামলা চালিয়ে তিন যাত্রীকে খুন করার তিনদিনের মধ্যেই ফের বড় ধরনের হামলা চালাল আল শাবাব।