ক্ষমতার অপব্যবহার এবং কংগ্রেসের কাজে বাধা সৃষ্টির অভিযোগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসন বিল উচ্চকক্ষ সিনেটে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার প্রতিনিধি পরিষদে এই সংক্রান্ত এক বিল ২২৮-১৯৩ ভোটে পাস হয়। খবর দ্য গার্ডিয়ানের

গত ১৮ ডিসেম্বর সংখ্যাগরিষ্ঠের ভোটে নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

তবে চূড়ান্ত অভিশংসনের জন্য দেশটির উচ্চকক্ষ সিনেটে বিচার হতে হবে। সেখানে দুই-তৃতীয়াংশ ভোটে অভিশংসিত হলে প্রেসিডেন্ট পদ ছাড়তে হবে ট্রাম্পকে। তবে ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হলেও রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত সিনেটে ট্রাম্পের দোষী প্রমাণিত হওয়ার আশঙ্কা কম।

মামলা সিনেটে পাঠানোর প্রস্তাব গৃহীত হওয়ার পর অভিশংসনের অভিযোগগুলোতে নিম্নকক্ষের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি এবং সাত ডেমোক্র্যাট আইনপ্রণেতা স্বাক্ষর করেন।

প্রতিনিধি পরিষদের গোয়েন্দা বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান অ্যাডাম স্কিফের নেতৃত্বে এ সাত ‘ব্যবস্থাপক’ সিনেটে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলায় বাদীর ভূমিকা পালন করবেন।

অভিশংসন নথিতে স্বাক্ষরের আগে এক সংবাদ সম্মেলনে ন্যান্সি পেলোসি বলেন, আমরা আজ ইতিহাস গড়তে যাচ্ছি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ক্ষমতার অপব্যবহার ও কংগ্রেসের কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত করার অভিযোগে অভিশংসিত হওয়ার নথিগুলো ব্যবস্থাপকরা সিনেটে পেশ করবেন। 

রিপাবলিকান সিনেট নেতা মিচ ম্যককনেল বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে সিনেটে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব নথি পড়ে শোনানো হবে। 

এর আগে এ বিচারের সভাপতিত্ব করতে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিবচারপতি জন রবার্ট শপথ নেবেন। এরপর জুরি হিসেবে সিনেটররা শপথ নেবেন।

আগামী মঙ্গলবার শুরু হবে এই বিচার প্রক্রিয়া। এ নিয়ে তৃতীয় কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের সিনেটে বিচার প্রক্রিয়া শুরু হতে যাচ্ছে।