মাস্ক চুরি করতে গিয়ে…

প্রকাশ: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলেছে। প্রাণঘাতী এ রোগটি ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের অনেক দেশেও। এ রোগ নিয়ে চিন্তিত এখন গোটা বিশ্ব। রোগ প্রতিরোধের উপায় না থাকায় সার্জিকাল মাস্ক ব্যবহার করেই এ রোগ প্রতিরোধের চেষ্টা চলছে চীনে। এ কারণে ওই দেশে মাস্কের চাহিদা বেড়ে গেছে। অন্যান্য দেশেও এ ধরনের মাস্ক ব্যবহৃত হচ্ছে। 

চীনের মতো করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে হংকংয়েও। আতঙ্কে মানুষ রাস্তাঘাটে, দোকানপাটে কম বের হচ্ছেন। যারাই বের হচ্ছেন ব্যবহার করছেন সার্জিক্যাল  মাস্ক।

কিন্তু মাস্ক ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় চীনের মতো এখানেও মাস্কের সংকট তৈরি হয়েছে। সম্প্রতি মাস্কের জন্য হংকংয়ে গাড়ির কাঁচ ভেঙে আট বাক্স এন ৯৫ সার্জিক্যাল মাস্ক চুরি করে গ্রেপ্তার হয়েছেন এক ব্যক্তি। জানা গেছে, সান সিং এভেনিউয়ে রাস্তার ধারে একটি ব্যক্তিগত গাড়ি পার্ক করা ছিল। সেই গাড়ির মধ্যেই ছিল ১৬০টি মাস্ক। সেটি নিতেই গাড়ির কাঁচ ভাঙে অভিযুক্ত ব্যক্তি।

পরে সিসিটিভির ফুটেজ দেখে ৩৩ বছর বয়সী অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

জানা গেছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর মাস্ক চুরির ঘটনা হংকেং এটাই প্রথম হয়, প্রায়ই ঘটছে। ১১ ফেব্রুয়ারি ৭৫০ টি মাস্ক হারানো নিয়ে এক ব্যক্তি পুলিশে রিপোর্ট করেন । আধ ঘন্টা পর একটি বানিজ্যিক ভবন থেকে ১ হাজারটি মাস্ক চুরির ব্যাপারে পুলিশে অভিযোগ করেন আরেক নারী। 

এর আগে নিজের স্টোরহাউস থেকে ২৫ হাজার টি মাস্ক চুরির অভিযোগ করেন একজন অনলাইন ব্যবসায়ী। 

এখন পর্যন্ত হংকংয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন একজন। ফেব্রুয়ারির ১২ তারিখ পর্যন্ত ওই দেশে আক্রান্তে সংখ্যা ৫০ জন।