যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডন শহরের কেন্দ্রে এক মসজিদের ভেতর মুয়াজ্জিনকে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার জোহরের নামাজের সময় এ ঘটনা ঘটে। আহত মুয়াজ্জিনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং তার অবস্থা আশঙ্কাজনক নয়। এ ঘটনায় মসজিদের ভেতর থেকে ২৯ বছর বয়সী এক ব্যক্তিতে আটক করেছে পুলিশ। খবর বিবিসির।

এ ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে চিহ্নিত করেনি পুলিশ। তাদের ধারণা, এটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। হামলার পর ওই এলাকার জনসাধারণ ও মসজিদে নামাজ পড়তে আসা ব্যক্তিদের জন্য নিরাপত্তা জোরদার করেছে পুলিশ। লন্ডন সেন্ট্রাল মসজিদে ওই হামলার প্রত্যক্ষদর্শী আবি ওয়াতিক জানিয়েছেন, হামলাকারীকে এর আগেও মসজিদে দেখা গেছে। হামলাকারী মুয়াজ্জিনের পেছনে নামাজ পড়ছিলেন। সেখান থেকেই হঠাৎ আক্রমণ করেন। মসজিদে থাকা কয়েকজন পুলিশ আসার আগ পর্যন্ত নামাজ বাদ দিয়ে হামলাকারীকে আটকে রাখেন।

মসজিদের উপদেষ্টা আয়াজ আহমদ বলেছেন, মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মানুষ বাধা না দিলে হামলাটি প্রাণঘাতী হতে পারত। যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন টুইটে লিখেছেন, এ ঘটনায় তিনি গভীরভাবে মর্মাহত। লন্ডনের মেয়র সাদিক খান বলেছেন, ওই এলাকায় পুলিশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। তিনি টুইটে লিখেছেন, প্রত্যেক লন্ডনবাসী তাদের প্রার্থনার স্থানে নিরাপদ বোধ করার অধিকার রাখে।