সিঙ্গাপুুরে কোয়ারেন্টাইনে ২০ হাজার শ্রমিক

প্রকাশ: ০৬ এপ্রিল ২০২০     আপডেট: ০৬ এপ্রিল ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

২০ হাজার অভিবাসী শ্রমিককে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলেছে সিঙ্গাপুুর সরকার। এই শ্রমিকদের কয়েকজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর অন্যদের মধ্যে সংক্রমণ ঠেকাতেই এ পদক্ষেপ নিয়েছে দেশটির সরকার। 

সোমবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। অভিবাসী ওই শ্রমিকদের সবাই দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর নাগরিক। তারা বেশিরভাগই নির্মাণ শ্রমিক। 

তবে যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তারা কোন কোন দেশের নাগরিক তা বিবিসির প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়নি।

শ্রমিকদের দু’টি থাকার জায়গা (ডরমেটরি) এরই মধ্যে বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হয়েছে। এর একটি হলো পুঙ্গলে অবস্থিত এস১১ ডরমেটরি। এই ডরমেটরিতে রয়েছেন ১৩ হাজার শ্রমিক। তাদের মধ্যে ৬৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

অপরটি হলো ওয়েস্টলাইট তোহ গুয়ান ডরমেটরি। সেখানে রয়েছেন ৬ হাজার ৮০০ শ্রমিক। তাদের মধ্যে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৮ জন।

আক্রান্ত শ্রমিকদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া যে শ্রমিকরা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন তাদের জন্য তিনবেলা খাবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারা নির্দিষ্ট সময় বেতনও পাবেন।

শ্রমিকদের ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে। অন্যদের সঙ্গে দেখা করতেও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। তবে অনেক শ্রমিক কোয়ারেন্টাইনের পরিবেশ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। কারণ ডরমেটরিগুলোতে এক কক্ষে একাধিকজনের থাকার ব্যবস্থা করা হয়।

সিঙ্গাপুরে ১ হাজার ৩০০ এর বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৬ জন।