ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে রয়েছেন। তার বর্তমান অবস্থায় দুশ্চিন্তা ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিশ্বনেতারা। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার এই অবস্থাকে ‘দারুণ মর্মঘাতী’ বলে মন্তব্য করেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দ্রুত রোগমুক্তি কামনা করেছেন বিশ্বের অন্যান্য দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা। খবর আলজাজিরার।

সোমবার ট্রাম্প এক বিবৃতিতে বলেন, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে ভর্তি হওয়ায় তিনি দারুণ উদ্বিগ্ন। যুক্তরাষ্ট্রের সব নাগরিক তার সুস্থতার জন্য প্রার্থনা করছেন। 

গত সোমবার মধ্যরাতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১০ দিন ধরে জ্বরে ভুগে তার অবস্থার অবনতি হলে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়। ট্রাম্প বলেন, আমি তার সম্পর্কে জানি। তিনি একজন সবল মনোভাবের মানুষ। অবশ্যই সঙ্কট কাটিয়ে উঠবেন তিনি।

তবে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করাটা ‘বড় ও বিপজ্জনক’ খবর বলে স্বীকার করেন তিনি।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর আরোগ্য কামনা করে বলেন, নিশ্চয় তিনি সঙ্কট কাটিয়ে উঠবেন। বরিস জনসন ও তার পরিবারের প্রতি আমাদের শুভেচ্ছা ও সমবেদনা।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোও বরিস জনসনের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দ্রুত রোগমুক্তি কামনা করেছেন। তিনি বলেন, আপনি শিগগিরই আপনার অফিসে ফিরে আসুন।

আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী লিও ভ্যারাডকার বলেন, আমাদের সব চিন্তা এখন বরিসকে নিয়ে। তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন।