প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে অনেকেই মারা যেতে পারেন- এই আশঙ্কায় ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় ডিনিপ্রো শহরে কয়েকশ কবর খোঁড়া হয়েছে। সরকারি সহায়তায় এ কাজ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তরা। রোগীদের মৃত্যুর আগেই কবর খোঁড়ার বিষয়টি নিয়ে সে দেশে তুমুল বিতর্ক চলছে। খবর এএফপির।

ডিনিপ্রোর মেয়রের মুখপাত্র ইউলিয়া ভিটভিটস্টি বলেন, কভিড-১৯ বা করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে যারা মারা যাবেন, তাদের কথা মাথায় রেখে ৬১৫টি কবর খনন করা হয়েছে। এ ছাড়া মরদেহ বহনের জন্য দুই হাজার ব্যাগও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এই কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে মানুষকে কোয়ারেন্টাইনের বিষয়ে সচেতন করতে চান তারা।

শহরের বাইরে বনভূমিতে ঘেরা বিশাল একটি মাঠে ১০০টি নতুন প্লটে ক্রস রেখাযুক্ত কবর খোঁড়া হয়েছে। সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে ইউক্রেনে করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত প্রায় দেড় হাজার আক্রান্ত ও ৪৫ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ডিনিপ্রো শহরে ১৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তবে এখানে কোনো মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। ইউক্রেন সরকারের এ ধরনের পদক্ষেপ ভাবিয়ে তুলেছে দেশটির নাগরিকদের। এ পদক্ষেপের কারণে ব্যাপক সমালোনার মুখে পড়তে হয়েছে সরকারকে।