দক্ষিণ আমেরিকার দেশ উরুগুয়ের উপকূলে আটকে আছে দ্য গ্রেগ মরটিমার নামে একটি প্রমোদতরী। সেখানে থাকা অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের যাত্রীদের সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার নিজেদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেবে দেশ দু’টি। এই প্রমোদতরীতে থাকা যাত্রীদের ৬০ শতাংশই নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। 

বার্তা সংস্থা এএফপি ও সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে প্রমোদতরীটিতে ব্রিটেনসহ ইউরোপ-আমেরিকার আরও কয়েকটি দেশের নাগরিকেরা রয়েছেন। তারাও সংক্রমণের ভয়ে ও চিকিৎসার জন্য দেশে ফেরার আর্জি জানিয়েছেন।

দ্য গ্রেগ মরটিমার প্রমোদতরীর ২১৭ যাত্রী ও ক্রুর মধ্যে ১২৮ জনই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত।

অস্ট্রেলিয়ার অরোরা এক্সপিডিশনস প্রমোদতরীটি পরিচালনা করে। গত ১৫ মার্চ জাহাজটি অস্ট্রেলিয়া থেকে অ্যান্টার্কটিকায় ব্রিটিশ মালিকানাধীন দক্ষিণ জর্জিয়া দ্বীপের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে। চলতি মাসের শুরুর দিকে প্রমোদতরীর যাত্রীরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে থাকেন।

কয়েকটি দেশের কাছে অনুরোধ করেও উপকূলে জায়গা না পাওয়ায় অবশেষে উরুগুয়ের উপকূলে জায়গা পায় জাহাজটি।

এর আগে আরও দু’টি প্রমোদতরীতে ছড়িয়ে পড়েছিল করোনাভাইরাস। এর একটি জাপান উপকূলে ও অপরটি যুক্তরাষ্ট্রের উপক’লে নোঙর করা ছিল। পরে জাহাজ দু’টি থেকে যাত্রীদের সরিয়ে নেওয়া হয়।