পশুপাখিদের রেস্তোরাঁ

প্রকাশ: ১৬ এপ্রিল ২০২০     আপডেট: ১৬ এপ্রিল ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

সমকাল ডেস্ক

করোনাভাইরাসের কারণে অনেক মানুষ ঘরবন্দি। এতে ইচ্ছামতো ঘুরে বেড়ানোর সুযোগ হয়েছে অনেক বন্যপ্রাণীর। খাবারের সন্ধানে তারা লোকালয়েও চলে আসছে। আবার অনেক প্রাণীর খাবারে টান পড়েছে। রাস্তার কুকুর ও বিড়ালের মতো কিছু প্রাণী মানুষের দেওয়া রেস্তোরাঁ বা ছোট দোকানের খাবারের ওপর অনেকাংশে নির্ভরশীল। সেই প্রাণীরা ঠিকমতো খাবার পাচ্ছে না।

সে কথা ভেবেই পশুপাখিদের জন্য রেস্তোরাঁ খুলেছেন এক ব্যক্তি। যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের ডেট্রয়েট শহরের বাসিন্দা জেমস ভ্রিল্যান্ড পশুপাখিদের নিয়ে খেলতে বেশ আনন্দ পান। এবার তিনি তার বাড়ির সামনের ফাঁকা জায়গায় পশুপাখিদের খাওয়ার বন্দোবস্ত করেছেন। সেখানে কাঠের টুকরার ঘের দিয়ে একটি রেস্তোরাঁ তৈরি করেছেন। সুশৃঙ্খলভাবে প্রবেশের জন্য সুন্দর একটি দরজাও বানিয়ে দিয়েছেন। দরজার পাশে রেস্তোরাঁর মতোই একটি রিসেপশন ডেস্ক বসিয়েছেন। এই ডেস্কে রাখা হয়েছে খাবারে তালিকাও। ভেতরে কাঠবিড়ালি ও পাখিদের বসার মতো ছোট ছোট টেবিল রেখেছেন। ফরাসি ভাষায় রেস্তোরাঁর নাম দিয়েছেন 'মাইসন ডু নয়েস' (বাদামঘর)।

জেমসের রেস্তোরাঁর নাম থেকেই বোঝা যাচ্ছে, কী পাওয়া যায় সেখানে। তিনি প্রতিদিন নিয়ম করে কাঠবিড়ালি ও পাখিদের জন্য নানা রকম বাদাম রাখছেন। তবে দরজা নয়, পশুপাখিরা ঘের টপকে আসতেই বেশি স্বচ্ছন্দ বোধ করছে। আর পেটপুরে খাওয়ার পর তাদের কাছে কেউ টাকা-পয়সাও চাইছে না। দিনে যতবার ইচ্ছা তারা আসছে, খেয়ে যাচ্ছে।