চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকেই ছড়িয়ে পড়ে নভেল করোনাভাইরাস বা কভিড-১৯। করোনাভাইরাসে চীনে যত মানুষ মারা গেছে তার বেশিরভাগই উহানের। শুক্রবার দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ হঠাৎ করেই উহানে মৃতের সংখ্যা ৫০ শতাংশ বাড়িয়ে দিয়েছে।

মৃতের সংখ্যা হঠাৎ বাড়িয়ে দেখানোর কারণ হিসেবে কর্তৃপক্ষ বলেছে, কিছু মৃত্যুর ঘটনা ‘ভুলক্রমে’ বাদ পড়ে গিয়েছিল। সেসব তথ্য বিশ্লেষণ করে উহানে মৃতের সংখ্যা পুনরায় প্রকাশ করা হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীন করোনাভাইরাসে মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা উল্লেখ করছে না বলে প্রশ্ন তুলেছে যুক্তরাষ্ট্র। বিষয়টি নিয়ে ক্রমাগত বেইজিংকে চাপ দিয়ে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে চীন। এমন পরিস্থিতিতে উহানে মৃতের সংখ্যা ৫০ শতাংশ বাড়িয়ে দেখাল চীন।

স্থানীয় শহর কর্তৃপক্ষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানিয়েছে, উহানে মোট মৃতের সংখ্যার সঙ্গে নতুন করে ১ হাজার ২৯০ জনকে যুক্ত করা হয়েছে। ফলে উহানে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ হাজার ৮৬৯ জনে।

উহানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় চীনে মোট মৃতের সংখ্যাতেও পরিবর্তণ এসেছে। দেশটিতে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৬৩২ জনে। সে হিসেবে চীনে মোট মৃতের হার এক লাফে বেড়ে গেছে ৩৯ শতাংশ।

যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ, উহানের কোনো গবেষণাগার থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে। ভাইরাস সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে চীনের কার্যক্রমকে নজরদারির মধ্যে এনে তদন্ত চাইছে যুক্তরাষ্ট্র। চীন সে অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে এর আগে বেইজিং বলেছিল, যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর মাধ্যমে উহানে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। এ নিয়ে ওয়াশিংটন-বেইজিংয়ের মধ্যে তুমুল বাগযুদ্ধ চলছিল।