লকডাউনের কারণে কাজ বন্ধ। সময় কাটছিল না কিছুতেই। এই পরিস্থিতিতে বন্ধুবান্ধব, প্রতিবেশীদের নিয়ে তাসের আসর বসিয়েছিলেন এক ট্রাকচালক। এতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ জন।

ঘটনাটি ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের বিজয়ওয়াড়া শহরের এক লোকালয়ের। শনিবার কৃষ্ণ জেলার কালেক্টর এ মহম্মদ ইমতিয়াজ ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভিকে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

বিজয়ওয়াড়ার আরও এক অঞ্চলে আরেক ট্রাকচালকের কারণে ১৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে। ঘটনা দুটির কারণে ওই অঞ্চলে ৪০ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

জেলার ওই কর্মকর্তা জানান, বিজয়ওয়াড়ার কৃষ্ণ লঙ্কা লোকালয়ের এক ট্রাকচালক সময় কাটানোর জন্য তাসের আসর বসিয়েছিলেন। এতে যোগ দিয়েছিলেন বন্ধুবান্ধব ও প্রতিবেশীরা।  এলাকার নারীরাও ওই সময় দল বেঁধে স্থানীয় খেলা তাম্বোলা খেলতে শুরু করেন। এর ফলে ওই এলাকায় ২৪ জন করোনা আক্রান্ত হন।

তিনি বলেন, কর্ণিকা নগরেও সামাজিক মেলামেশার কারণে এক ট্রাকচালকের মাধ্যমে  ১৫ জন আক্রান্ত হন।

জেলা কর্মকর্তা জানান, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে না পারাতেই জেলায় করোনা সংক্রমণের হার বেড়েছে।

এদিকে অন্ধ্রপ্রদেশের অন্যতম হটস্পট বলে চিহ্নিত বিজয়ওয়াড়ায় এখন পর্যন্ত শতাধিক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় এখানে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২৫ জন।

ভারতে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৬ হাজার ৪৯৬ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮২৪ জনের।