চার্চকে মৃত্যুফাঁদ বললেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরোধী দলীয় নেতা

প্রকাশ: ২৯ মে ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

করোনাক্রান্ত সময়ে বাড়ি ছেড়ে চার্চে গিয়ে উপাসনা করাকে মৃত্যুফাঁদ বললেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরোধী দলীয় নেতা জুলিয়াস মালেমা। দেশবাসীকে সতর্ক করে দিয়ে ইকোনমিক ফ্রিডম ফাইটার্স দলের এই নেতা ধর্মীয় ব্যক্তিত্বদের উদ্দেশে বলেন, জনগণের ভাল চাইলে আপনাদের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করুন। খবর বিবিসির

বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি করোনা মহামারির মধ্যেও সরকারের ধর্মীয় উপাসনালয় খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন। কিছু ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেও অনেকে চার্চকে ভাইরাসের উৎপাদনস্থল হিসেবে মনে করছেন।

মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা বলেন, ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে আলোচনার পর চার্চ খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মাস্ক পরে ও পরিচ্ছন্ন থেকে সর্বোচ্চ ৫০ জন চার্চে থাকার শর্ত দেওয়া হয়েছে। মালেমা বলেছেন, যেখানে রেস্তোরাঁ এখনো বন্ধ রয়েছে , সেখানে ধর্মীয় উপাসনালয় খোলার সিদ্ধান্ত কাণ্ডজ্ঞানহীনের মতো কাজ।

ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে মালেমা বলেছেন, ‘ধর্মীয় নেতাদের প্রতি আমার অনুরোধ, তারা যেন তাদের প্রতিষ্ঠান না খোলেন। আপনারাই বলবেন, যেন চার্চে কেউ না আসে। আমি বলছি, চার্চে কেউ যাবেন না, আপনারা মরতে যাচ্ছেন। এটা একটা ফাঁদ। আমাদের জনগণ ঘরেই প্রার্থনা করতে পারে। আপনারা রেস্তোঁরা বন্ধ রাখলেন এবং খুলছে চার্চ। অর্থনীতিতে চার্চের অবদান কী? রেস্তোঁরায় তো আগে থেকেই সামাজিক দূরত্ব মানা হয়েছে।’