ভারতে দুই দিনেই আক্রান্ত লাখের বেশি

প্রকাশ: ৩১ জুলাই ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ভারতে মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণের গতি অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে। দুইদিনেই আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে এক লাখের বেশি। শুক্রবার সকালে জানা গেল, আগের ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৫৫ হাজার। তার আগের দিন আক্রান্ত হয়েছে ৫২ হাজার। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্ত ১৬ লাখ ৩৮ হাজার পেরিয়েছে। আর এ মহামারিতে দেশটিতে মৃত্যুও ঘটেছে প্রায় ৩৬ হাজার মানুষের। খবর এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার। 

দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় শুক্রবার সকালে জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৫ হাজার ৭৮ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৬ লাখ ৪২ হাজার ৫৮৮ জনের। যা একদিনের সর্বোচ্চ পরীক্ষা। সংক্রমণের হার ৮.৫৭ শতাংশ। এতে দেশটিতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখন ১৬ লাখ ৩৮ হাজার ৮৭০ জন।

আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও, করোনা রোগীর সুস্থ হয়ে ওঠার পরিসংখ্যানটাও এখন স্বস্তিদায়ক। এখন পর্যন্ত মোট ১০ লাখ ৫৭ হাজার ৮০৫ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। অর্থাৎ মোট আক্রান্তের প্রায় ৬৪.৫৪ শতাংশই সুস্থ হয়ে উঠেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩৭ হাজার ২২৩ জন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৭৭৯ জনের। এ নিয়ে দেশটিতে মোট ৩৫ হাজার ৭৪৭ জনের প্রাণ কাড়ল করোনাভাইরাস। 

ভারতে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও প্রাণহানি ঘটেছে মহারাষ্ট্র রাজ্যে। এই রাজ্যে এখন পর্যন্ত মারা গেছে ১৪ হাজার ৭২৯ জন। মৃত্যুর তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা দিল্লিতে প্রাণ গেছে ৩ হাজার ৯৩৬ জনের। তালিকার তৃতীয় স্থানে থাকা তামিলনাড়ু রাজ্যে মারা গেছেন ৩ হাজার ৮৩৮ জন। এছাড়া গুজরাটে ২ হাজার ৪১৮ জন, উত্তরপ্রদেশ রাজ্যে ১ হাজার ৫৮৭ জন এবং পশ্চিমবঙ্গ ১ হাজার ৫৩৬ জন মারা গেছে করোনায়। 

মৃত্যুর দিক থেকে স্পেন ও ফ্রান্সকে আগেই পেছনে ফেলেছিল ভারত। শুক্রবার দেশটি টপকে গেল ইতালিকেও। বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর তালিকায় ভারত এখন পাঁচ নম্বরে। আর আক্রান্তের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পরই ভারতের অবস্থান।