লেবাননের বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফেরাণে টনক নড়েছে ভারতের চেন্নাইয়ের প্রশাসনের। শহরের খুব কাছেই মজুত করে রাখা হয়েছিল ৬৯৭ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট। বৈরুতের ঘটনার পর তড়িঘড়ি করে সরিয়ে নেয়া হয়েছে এই বিস্ফোরক। এই বিপুল পরিমাণ মজুত রাসায়নিকের অনলাইনে নিলাম হয়। নিলামের পরে ৬৯৭ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট হায়দারাবাদে সরিয়ে নেয়া হয়। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার

দীর্ঘদিন ধরে চেন্নাইয়ের কাছে রাখা ছিল এই রাসায়নিক। ২০১৫ সালে কাস্টম আইন ১৯৬২ অনুযায়ী আটক করা হয় এই অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট। চেন্নাই থেকে ২০ কিলোমিটার দূরের ফ্রেইট স্টেশনে সেই সময় থেকেই রাখা এই রাসায়নিক। এই ফ্রেইট স্টেশনের কাছাকাছি কোনও জনবসতি নেই। তামিলনাড়ুর এক আমদানিকারক দক্ষিণ কোরিয়া থেকে এই অ্য়ামোনিয়াম নাইট্রেট বেআইনি ভাবে আমদানি করেছিল। এটি বিস্ফোরক হলেও একে সারদ্রব্য হিসেবে দাবি করেছিলেন তিনি। এর মধ্যে সাত টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ইতোমধ্যেই নষ্ট হয়ে গিয়েছে। বাদবাকি ৬৯০ টন রাসায়নিকের ই-নিলাম করা হয়।

গত মঙ্গলবার লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়। এই বিস্ফোরণে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১৬০ জনের।