নিউজিল্যান্ডে আবার লকডাউন, নতুন শনাক্ত ১৪

প্রকাশ: ১৩ আগস্ট ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

করোনা মহামারি থেকে মুক্তির আনন্দে নিউজিল্যান্ডের মানুষ যখন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে স্বাভাবিক জীবন যাপনে মুখর হয়ে উঠেছে, তখনই নতুন করে দুঃসংবাদ। অকল্যান্ডে চলতি সপ্তাহের শুরুতে এক পরিবারে চারজনের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরে সতর্ক হয়েই উঠেছিল দেশটির সরকার। কিন্তু সে সংখ্যা ১৪ জনে পৌঁছাতেই ফের লকডাউনের ঘোষণা জারি হয়েছে। 

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিনমাসেরও বেশি সময় ধরে নিউজিল্যান্ডে স্থানীয়ভাবে নতুন কোনো সংক্রমণের ঘটনা ঘটেনি। দেশটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরে আসছিল। কিন্তু চলতি সপ্তাহের শুরুতে একই পরিবারের চারজনের শরীরে নতুন করে করোনা শনাক্ত হওয়ার পর তা সবাইকে হতবাক করে দেয়। এরপরই আবার ১৪ জনের করোনা সংক্রমণের খবর পাওয়া গেল। নতুন শনাক্তদের ১৩ জনই একই পরিবারভুক্ত। একজন এসেছিলেন বিদেশ থেকে এবং এর আগে তিনি ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনেও ছিলেন। নতুন শনাক্তের পর সরকার অকল্যান্ডে তিনদিনের লকডাউন ঘোষণা করেছে। বুধবার লকডাউন ঘোষণা করা হয়। 

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডেন বলেছেন, ‘পরিস্থিতি আসলে কতটা ভয়াবহ আমরা বুঝতে পারিনি। তবে সেটা এখন দেখতে পাচ্ছি। আমরা এটা জরুরি ভিত্তিতেই মোকাবিলা করব। তবে অস্থির হয়ে লাভ নেই। যা করার পদ্ধতিগতভাবেই করতে হবে।’ 

অকল্যান্ডে লকডাউন জারি করার পাশাপাশি দেশ জুড়ে যথাযথভাবে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা সংক্রান্ত বিধিনিষেধও পুনরায় চালু করতে যাচ্ছে এর আগে করোনা মোকাবিলায় বিশ্বব্যাপী প্রশংসা পাওয়া দেশটির সরকার। নিউজিল্যান্ডে এটা করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ধাপের সংক্রমণ বলে আশঙ্কা করেছেন সংশ্লিষ্টরা।