ক্রিকেট খেলার দায়ে কাশ্মীরে ১০ যুবক গ্রেপ্তার!

প্রকাশ: ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

কাশ্মীরের বারামুলায় ক্রিকেট খেলার অপরাধে দশ যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে এই ক্রিকেট ম্যাচ আসলে সাধারণ ক্রিকেট ম্যাচ নয়। এর আড়ালে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা জঙ্গি শিক্ষার বিকাশ ঘটানোর চেষ্টা করেছে বলে অভিযোগ পুলিশের।

দু’দিন আগে বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইনের (ইউএপিএ) অধীনে ওই ১০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে নিরাপত্তারক্ষীরা। তবে কিক্রেট খেলায় অপরাধ না থাকলেও এক কুখ্যাত জঙ্গিনেতার স্মরণে এই ম্যাচ আয়োজন ও খেলার কারণেই তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, সৈয়দ রুবান নামের ওই জঙ্গি নেতাকে স্মরণ করার জন্য তার নাম সম্বলিত জার্সিও ক্রিকেটারদের উপহার দিয়েছিল আয়োজকরা। যা রীতিমতো আইন বিরোধী।

প্রসঙ্গত, গত জানুয়ারিতে সৈয়দ রুবান তার ৯ সঙ্গীসহ পুলিশের গুলিতে নিহত হয়। তারপর থেকেই ওই জঙ্গির ভাই বারামুলায় তার স্মরণে নানারকম কার্যকলাপ করে চলেছে। কখনও ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন আবার কখনও জঙ্গি রুবানের নাম লেখা জামা-কাপড় বিতরণ। সেজন্যই কাশ্মীর পুলিশ ক্রিকেট ম্যাচটির সঙ্গে যুক্ত ১০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশের দাবি, ক্রিকেট খেলে বা যেভাবেই হোক কোনও জঙ্গিকে গৌরবান্বিত করা দেশদ্রোহিতারই শামিল।