হারিয়ে যাওয়া ফোনে বানরের সেলফি!

প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

হারিয়ে যাওয়া ফোন খুঁজে পেলে কার না ভালো লাগে। কিন্তু সেই ফোনে যদি শুধু বানরের সেলফি আর ভিডিওতে পূর্ণ থাকে তাহলে কেমন লাগবে? সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা ঘটেছে মালয়েশিয়ায় । খবর বিবিসির

ওই প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ফোনটির মালিক মালয়েশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় জোহরের রাজ্যের বাটু পাহাটের ফাইনাল বর্ষের কম্পিউটার বিজ্ঞানের শিক্ষার্থী  ২০ বছর বয়সী জ্যাক্রিডজ রোডজি। গত শনিবার বেলা ১১টার দিকে বাড়িতে ঘুম থেকে উঠে তিনি নিজের স্মার্টফোনটি খুঁজে পাচ্ছিলেন না। রোডজি জানান, বাড়িতে কোনও ধরনের চুরি-ডাকাতির চিহ্ন ছিল না আশপাশে। ফোনটা যেন বেমালুম গায়েবই হয়ে গিয়েছিল। পুরো একদিন ফোনটির কোনও খোঁজ পাননি তিনি।

রোডজি বলেন, রোববার বিকাল পর্যন্ত ফোন খুৎজে পাননি তিনি। এরপর তার বাবা বাড়ির বাইরে বের হলে একটি বানর দেখতে পান। এ সময় রোডজির ফোনে কল দিলে কাছে কোথাও ফোনটি বাজতে থাকে। পরে তিনি জঙ্গলের পিছনের দিকে তালগাছের নিচে পাতায় ঢাকা অবস্থায় ফোনটি আবিষ্কার করেন।

ফোন খুঁজে পাওয়ার পর রোডজির চাচা মজা করে বলেন, ফোনে মনে হয় চোরের ছবি আছে। পরে রোডজি ফোন হাতে নিয়ে ফটো গ্যালারি চেক করলে শুধু বানরের ছবিই দেখতে পান।একইসঙ্গে বানরের ভিডিও ছিল ওই ফোনে।

রোডজি বলেন, বিশ্বের এমন অনেক জায়গা আছে যেখানে বানররা শহুরে অঞ্চলে বা তার আশেপাশে বাস করে। তবে এখানে কোনও বাড়ি থেকে বানরদের জিনিসপত্র চুরির ইতিহাস নেই। রোডজির সন্দেহ, বানরটি তার ভাইয়ের ঘরের জানালা দিয়ে বাড়িতে প্রবেশ করেছে।

রোডজি রোববার টুইটারে বানরের তোলা সেই সেলফি আর ভিডিও প্রকাশ করেন। তাতে লেখেন, শতাব্দীতে হয়তো একবারই এমন দৃশ্য দেখতে পাবেন। পরে সেই পোস্টটি দ্রুত ভাইরাল হয়ে অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ে।

বিবিসিও ভিডিওটি প্রকাশ করেছে। এতে দেখা গেছে, ফোন হারিয়ে যাওয়ার দিন, অর্থাৎ শনিবার দুপুর ২টা ১ মিনিটে ফোনটি খাওয়ার চেষ্টা করছে একটি বানর। ফোনের দিকে তাকিয়ে থাকা বানরটির পেছনে ছিল সবুজ গাছপালা। সেখানে পাখির কিচিরমিচিরও শোনা যাচ্ছিল।