করোনা চিকিৎসায় কাজ করছে না রেমডেসিভির!

প্রকাশ: ১৬ অক্টোবর ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

করোনা চিকিৎসায় আশার আলো হয়ে এসেছিল রেমডেসিভির। যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতসহ কয়েকটি দেশে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় এ ওষুধ প্রয়োগও করা হচ্ছে। তবে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার একটি পরীক্ষায় উঠে এসেছে এমন এক তথ্য, যা রীতিমতো হতাশা জাগানো।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিসায় প্রয়োগ করা রেমডেসিভির কার্যত কোনো কাজই করছে না। বৃহস্পতিবার তার ফলাফল ইন্টারনেটে অনলাইন হতেই উদ্বেগ বেড়েছে চিকিৎসক-গবেষক-বিশেষজ্ঞদের। শুরু হয়েছে বিকল্প ভাবনা। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

চলতি বছরের পয়লা মে যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি জিলিয়াড সায়েন্সেস-এর তৈরি অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ রেমডেসিভিরকে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের ছাড়পত্র দিয়েছিল দেশটির ফুড অ্যান্ড ড্রাগ কন্ট্রোল অ্যাডমিনস্ট্রেশন (এফডিএ)। এর পর তা ভারতসহ বহু দেশই এই ওষুধের প্রয়োগে স্বীকৃতি দেয়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ বিশ্বের লাখ লাখ কোভিড আক্রান্ত মানুষের চিকিৎসায় এ ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছিল। কিন্তু বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার পরীক্ষায় সেই অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগের কার্যকারিতা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে এখন।

সংস্থার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে দেখা গেছে, করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় রেমডেসিভিরের কোনো কার্যকারিতাই নেই।

করোনার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধগুলোর কার্যকারিতা কেমন, তা জানতে পরীক্ষাটা চালিয়েছিল বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা। তাতেই উঠে এসেছে এমন হতাশাজনক তথ্য। অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ রেমডেসিভির ছাড়াও ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন, এইচআইভি-র চিকিৎসায় ব্যবহৃত লোপিনাভির/রিটোনাভির এবং ইন্টারফেরন— এই চারটি ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছিল ৩০টি দেশের ১১ হাজার ২৬৬ জন প্রাপ্তবয়স্ক রোগীর ওপর। ২৮ দিনের পর্যবেক্ষণে রাখা রোগীদের শারীরিক নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা এবং সেগুলো বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, রেমডেসিভিরের কার্যকারিতা বলতে গেলে কিছুই নেই। হু অবশ্য জানিয়েছে, এই ফলাফল ‘প্রি-প্রিন্ট’ সার্ভারে আপলোড করা হয়েছে এবং এই ফলাফল পুনর্বিবেচনা করা হবে।