করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যেই মুদ্রাস্ফীতির কারণে নাজেহাল পাকিস্তান। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে আকাশছোঁয়া। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে দেশটিতে একটি ডিম বিক্রি হচ্ছে ৩০ রুপিতে।

পাকিস্তানে এক ডজন ডিমের জন্য দিতে হচ্ছে ৩৫০ রুপি। শীতের জন্য পাকিস্তানে ডিমের চাহিদা বেড়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম দ্য ডন। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে দামও। 

দেশটিতে প্রতি কেজি চিনি বিক্রি হচ্ছে ১০৪ রুপিতে। আদার দাম এক হাজার রুপি ও গম প্রতি কেজি ৬০ রুপিতে কিনতে হচ্ছে। খবর ডেইলি হান্টের

দেশের অর্থনীতির হাল ফেরানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন ইমরান খান। কিন্তু এই প্রতিশ্রুতি রক্ষায় করতে পারেনি ইমরান সরকার। 

পাকিস্তানে এখনও জনসংখ্যার প্রায় ৫০ শতাংশ দারিদ্রসীমার নিচে। এর মধ্যে জিনিসপত্রের দাম এতটাই বেড়েছে যে, সাধারণ মানুষের অনেকেই তাদের দৈনন্দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী কিনতেও হিমশিম খাচ্ছেন।