করোনাভাইরাস টিকা কতখানি কার্যকর এবং তা কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে কি-না, এ নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব চলছে যুক্তরাষ্ট্রের মানুষের মধ্যে। তাদের সে ভীতি কাটানোর জন্য এরইমধ্যে করোনার টিকা নিয়েছেন দেশটির নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এবার সেই পথে হাঁটলেন নবনির্বাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসও। 

জনগণের দ্বিধাদ্বন্দ্ব কাটাতে মঙ্গলবার টেলিভিশনের লাইভ অনুষ্ঠানে মডার্নার করোনা টিকা নিয়েছেন কমলা হ্যারিস। খবর আল জাজিরার।

টিকা নেওয়ার পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কমলা হ্যারিস বলেন, ভয় পাওয়ার কিছু নেই। এটা খুবই সহজ একটা ব্যাপার।ওয়াশিংটন ডিসির ইউনাইটেড মেডিকেল সেন্টারে তিনি মডার্নার প্রথম ডোজটি নেওয়ার সময় তার সঙ্গে ছিলেন স্বামী ডো এমহোফ।

নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের টিকা নেওয়ার এক সপ্তাহ পরে টিকা নিলেন কমলা। টিকা নেওয়ার লাইভ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, জীবন বাঁচানোর জন্য টিকা আপনাকে নিতেই হবে। আপনার পরিবারের নিরাপত্তার জন্যও বটে। বিজ্ঞানীদের ওপর আমার পুরোপুরি আস্থা রয়েছে। আপনার সময় যখন আসবে, তখন নির্দ্বিধায় টিকা নেবেন।

এর আগে প্রকাশ্যে টিকা নেন সাবেক তিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, জর্জ বুশ ও বিল ক্লিনটন। তবে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কবে টিকা নেবেন, কিংবা আদৌ নেবেন কি-না, তা এখনও নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না।

মন্তব্য করুন