শেখ মেহেদী হাসান প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চলে আসায় মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত যেন হাল ছেড়ে দিচ্ছেন। দু'দিন আগে বিসিবি ঘোষিত ১৮ সদস্যের দলে জায়গা হারালেন। ওয়ানডে দলে জায়গা না পেয়ে নতুন কাণ্ড বাধালেন আবুধাবির টি-টেন লিগের ছাড়পত্র নিয়ে। নির্বাচকদের সরাসরি নিজে না বলে ছাড়পত্র নিয়েছেন একজন পরিচালককে ধরে। কারণ নির্বাচকরা চেয়েছিলেন মোসাদ্দেককে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলাতে।

টেস্টের প্রাথমিক দলে না থাকায় প্রস্তুতি ম্যাচ খেলায়ও আগ্রহ হারান মোসাদ্দেক। এ সময়ে টি-টেনে খেলা লাভজনক তার জন্য। আবুধাবির টি-টেন লিগের দল মারাঠা এরাবিয়ান্স ৩৫ হাজার ডলার দেবে তাকে। করোনাকালীন সময়ে যা লোভনীয়। এ ছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেট মাঠে ফেরার অনিশ্চয়তাও মোসাদ্দেককে টি-টেনে খেলার সিদ্ধান্ত নিতে প্রভাবিত করে থাকতে পারে।

এ নিয়ে মোসাদ্দেকের ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি। বিসিবির একজন কোচ নাম গোপন রাখার শর্তে বলেন, 'টেস্টে না থাকলে তাকে প্রস্তুতি ম্যাচে খেলানোর কোনো মানে হয় না। প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার জন্য দেশে ক্রিকেটারের অভাব নেই। যে ছেলে জাতীয় দলের কোনো সংস্করণে নেই সে কেন বিদেশের একটি লিগে খেলার সুযোগ হাতছাড়া করবে?'

মোসাদ্দেকের ঘনিষ্ঠ ওই কোচ যুক্তি দিলেও বিসিবি পরিচালককে দিয়ে নির্বাচকদের ফোন করানোকে সঠিক হয়নি বলে মনে করেন।

মোসাদ্দেক জাতীয় দলে শেষ খেলেছেন ২০১৯ সালে ভারতের বিপক্ষে টি২০ সংস্করণে। ২০২০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজের দলে জায়গা হয়নি তার। করোনা-উত্তর নিউ নরমাল সময়ে অনুষ্ঠিত বিসিবির দুটি টুর্নামেন্টও ভালো যায়নি তার। শেখ মেহেদী ভালো খেলে জায়গা পাকা করে নিলে জাতীয় দলে ফেরা কঠিন হয়ে পড়বে তার। এ ব্যাপারে নির্বাচকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে নির্বাচকদের কথায় ইঙ্গিত ছিল, প্রস্তুতি ম্যাচে বড় ইনিংস খেললে টেস্টের জন্য বিবেচিত হতেন মোসাদ্দেক। তবে ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান মোসাদ্দেকের টি-টেন লিগে খেলার পক্ষে। বিসিবির এ পরিচালক বলেন, 'টেস্টের প্রাথমিক স্কোয়াডে থাকা অনেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে খেলবে। সে তো টেস্ট দলে নেই। ওকে ছেড়ে দেওয়াটাই ভালো। বিদেশি লিগে কিছু ম্যাচ খেলুক। তাসকিন ছাড়া সবাইকে টি-টেন লিগে খেলার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।'

২০২১ সালের টি-টেন লিগের তিনটি দলে বাংলাদেশের ছয়জন ক্রিকেটার ডাক পেয়েছেন। বাংলা টাইগার্সে শেখ মেহেদী ও আফিফ হোসেন। মারাঠা এরাবিয়ান্স নিয়েছে তাসকিন আহমেদ, মুক্তার আলী ও মোসাদ্দেক হোসেনকে। আর নাসির হোসেন খেলবেন পুনে ডেভিলসে। ২৮ জানুয়ারি থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি আবুধাবিতে হবে আট দলের টি-টেন লিগের খেলা।