জাপানের জলসীমায় চীনের উপকূলরক্ষী বাহিনীর জাহাজ অনুপ্রবেশের বিষয়টি ‘ন্যায়সঙ্গত’ বলে দাবি করেছে চীন। বেইজিং দাবি করেছে, পূর্ব চীন সাগরের সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জ তাদেরই অংশ।

টোকিওভিত্তিক কিয়োডো নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের জলসীমায় বিদেশি কোনো জাহাজ অনুপ্রবেশ করলে তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ব্যবহারের জন্য আইন করেছে দেশটির সরকার। সেনকাকুর আশেপাশে চলাচলকারী জাপানি জাহাজগুলো টার্গেট হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে প্রতিবেদনটিতে।  

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন বলেন, দ্বীপগুলোর কাছাকাছি জলসীমায় বেইজিংয়ের টহল এবং আইন প্রয়োগ সার্বভৌমত্ব রক্ষায় চীন কর্তৃক গৃহীত একটি বৈধ ব্যবস্থা।

নতুন আইন কার্যকর হওয়ার পর প্রথমবারের মতো চীন সেনকাকাসের কাছাকাছি জাপানের জলসীমায় অনুপ্রবেশ করে। এর প্রতিক্রিয়ায় শনিবার টোকিও বেইজিংয়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানায়। রোববার চীনের উপকূলরক্ষী জাহাজগুলি দ্বিতীয় দিনের মতো জাপানের জলসীমায় অনুপ্রবেশ করে। 

এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে কিয়োডো নিউজ জানিয়েছে, জাপানের জলসীমায় চীনের জাহাজ অনুপ্রবেশের ঘটনায় জাপান সরকার পরিস্থিতি বিশ্লেষণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি বিশেষ দল গঠন করেছে। 

জাপানে সেনকাকাস ও চীনে দিয়াওউস নামে পরিচিত দ্বীপপুঞ্জের মালিকানা দাবি করে আসছে প্রতিবেশী দুটি দেশই।