ভারতের সরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, জম্মু-কাশ্মীরকে যথাসময়ে রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হবে। লোকসভায় জম্মু অ্যান্ড কাশ্মীর রিঅর্গানাইজেশন (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল ২০২১–এর ওপর আলোচনাকালে শনিবার অমিত শাহ এ কথা বলেন।

২০১৯ সালে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলুপ্ত করে কেন্দ্রের শাসনে নিয়ে রাজ্যটিকে তার মর্যাদা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে এবং কেন্দ্র থেকে এর পূর্বের মর্যাদা ফিরিয়ে দেওয়ার কোনো ইচ্ছে নেই, বিরোধী দলগুলোর এমন সমালোচনার জবাবে অমিত শাহ তাদের দাবি নাকচ করে দিয়ে বলেন, এর আগের সরকারগুলো (কংগ্রেস) কাশ্মীরের জন্য কিছুই করেনি। খবর এনডিটিভির

অমিত শাহ বলেন, ‘অনেকে বলছেন- এই বিল আনার অর্থ হলো সরকার কাশ্মীরকে তার রাজ্যমর্যাদা ফিরিয়ে দিতে চায় না। কিন্তু আমি বিলটি নিয়ে কাজ করছি। বিলের কোথাও লেখা নেই যে, কাশ্মীরকে তার মর্যাদা থেকে বঞ্চিত করা হবে। তাহলে আপনারা কীভাবে এমন মনগড়া কথা বলছেন?’

তিনি বলেন, ‘এই হাউজে আমি আগেও বলেছি, এখনও বলছি, জম্মু-কাশ্মীরের মর্যাদা হরণের কোনো প্রস্তাব এই বিলে নেই। তাদের যথাসময়ে রাজ্যমর্যাদা ফিরিয়ে দেওয়া হবে।’

এর আগে গত সোমবার কংগ্রেস সাংসদ গোলাম নবি আজাদ অসীত শাহকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনারা বলেছিলেন, জম্মু-কাশ্মীরে মর্যাদা সুরক্ষিত আছে। কিন্তু এই বিল জে অ্যান্ড কে রিঅর্গানাইজেশন (অ্যামেন্ডমেন্ট বিল ২০২১) স্পষ্ট বলছে, এই মর্যাদা কখনো দেওয়া হবে না।

অমিত শাহ কংগ্রেসের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলুপ্ত করার সময় আমরা যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম, সেগুলোর ব্যাপারে কী করেছি জানতে চেয়েছেন। কিন্তু আমার প্রশ্ন আপনারাই বা কী করেছেন? বিশেষ করে যখন ক্ষমতায় ছিলেন, তখন কেন এসব নিয়ে কোনো কথা বলেননি?’