ভারতের পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের সংসদ সদস্য ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে হানা দিল দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (সিবিআই)। রোববার কলকাতার বাড়িতে গিয়ে কয়লা পাচার কেলেঙ্কারি তদন্তের অংশ হিসেবে তার স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নোটিশের চিঠি দেন তদন্ত কর্মকর্তারা।

অভিষেকের মানহানি মামলায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে আদালতে তলবের একদিন পর চিঠি দেওয়ার এ ঘটনাকে প্রতিশোধমূলক পদক্ষেপ বলে অভিযোগ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাজনৈতিক এই উত্তাপের মধ্যেই বিজেপির নির্বাচনী প্রচারে আজ পশ্চিমবঙ্গ সফরে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার আগমনকে ঘিরে বিজেপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সাজসাজ রব বিরাজ করছে।

কয়লা পাচার কেলেঙ্কারিতে আগেই অভিষেকের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত তৃণমূল নেতা বিনয় মিশ্রের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। এবার সিবিআই নজর দিয়েছে অভিষেকের দিকে। গতকাল দক্ষিণ কলকাতায় অভিষেকের বাসভবন শান্তিনিকেতন রেসিডেন্সিতে গিয়ে তার স্ত্রীকে নোটিশ দেন কর্মকর্তারা। এ সময় রুজিরা বাড়িতে ছিলেন না। ফলে কখন তিনি বাড়িতে থাকবেন তা সিবিআই কর্মকর্তাদের জানাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেদিনই অভিষেকের বাসভবনে গিয়ে রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন গোয়েন্দারা। ১৬০ ধারায় সাক্ষী হিসেবে তাকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

আব্বাসের দলের সঙ্গে বাম-কংগ্রেসের আসন সমঝোতা :অবশেষে বাম-কংগ্রেস ও ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্টের (আইএসএফ) মধ্যে দক্ষিণবঙ্গের আসন সমঝোতা চূড়ান্ত হয়েছে। শনিবার রাতে হুগলি জেলার বৈদ্যবাটিতে বৈঠকের পর তিন দলের পক্ষ থেকেই সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা নিশ্চিত করা হয়েছে।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, বৈঠকে দক্ষিণবঙ্গের ৮০ শতাংশ আসনের সমঝোতা হয়েছে। তবে উত্তরবঙ্গে আইএসএফের বেশ কিছু আসনের দাবি মানতে চায়নি কংগ্রেস। এ জন্য সিপিএমকেই উত্তরবঙ্গে কিছু বাড়তি আসন ছাড়ার দাবি করেছে আইএসএফ। বিষয়টি নিয়ে আবারও বৈঠকে বসার কথা বলেছে বাম ও কংগ্রেস।

মন্তব্য করুন