নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করা সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে মিয়ানমারের বিক্ষোভকারীরা। রাতভর মোমবাতি জ্বালিয়ে বিক্ষোভের পাশাপাশি জনগণকে ‘গেরিলা আঘাতের’ আহ্বান জানিয়েছে তারা।

ইন্টারনেটের ওপর শুক্রবার থেকে নতুন করে সামরিক জান্তার দেওয়া বিধিনিষেধের পরিপ্রেক্ষিতে এই আহ্বান এসেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যম রয়টার্স।

মিয়ানমারে তারবিহীন ব্রডব্যান্ড যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, এখন কেবল ফিক্সড-লাইনেই ইন্টারনেট সেবা চালু আছে। এমন অবস্থায় অভ্যুত্থানবিরোধীরা রেডিও তরঙ্গ, অফলাইন ইন্টারনেটের উপায় ও মোবাইল বার্তার মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা চালু রেখেছে।

বৃহস্পতিবার রাতে বাসস্টপে ‘ফুল হামলা’ চালানোর ঘোষণা দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে নিহত হওয়ার আগে অনেক বিক্ষোভকারীরই শেষ যাত্রা এইসব বাস স্টপ থেকে হয়েছিল।

বিক্ষোভকারীদের একজন নেতা খিন সাদার ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে বলেন, শুক্রবার আমরা বাস স্টপগুলোতে ফুল রেখে আসবো। ইন্টারনেট সেবা বিঘ্নিত হওয়ার আগে আমি আপনাদের এটুকুই বলতে চাই।

তিনি বলেন, আগামী দিনগুলোতে রাজপথে আরও বিক্ষোভ হবে। যত বেশি সম্ভব গেরিলা আঘাত করুন। দয়া করে আমাদের সঙ্গে যোগ দিন।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকেই বিক্ষোভ চলছে মিয়ানমারে।সামরিক জান্তা বিরোধী এই আন্দোলনেএরই মধ্যে দেশটিতে অন্তত ৫৪৩ জন নিহত হয়েছেন।