নিরাপত্তা হুমকির আশঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল ভবন অবরুদ্ধ করে ফেলেছে পুলিশ। এলাকাটিতে একটি গাড়ি দুই কর্মকর্তাকে ‘ধাক্কা দিয়েছে’, এমন খবর পাওয়ার পর শুক্রবার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্যাপিটল পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ক্যাপিটল কমপ্লেক্সের নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়তে পারে এ আশঙ্কায় এলাকাটি অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। কেউ একজন দুই কর্মকর্তাকে গাড়ি দিয়ে ধাক্কা দিয়েছেন খবরের পর এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অবশ্য সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তিকে পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে এরইমধ্যে। খবর বিবিসির

যে দুই কর্মকর্তাকে গাড়ি ধাক্কা দেওয়া হয়েছে, তাদের এবং আটক ওই সন্দেহভাজনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল এবং আশপাশের রাস্তাগুলোতে পুলিশ ‘বাহ্যিক নিরাপত্তা হুমকির’ বিষয়ে সতর্ক করার পর পুরো এলাকা অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছে।

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, ক্যাপিটল ভবন এলাকার দিকে একটি হেলিকপ্টার উড়ে যাচ্ছে। এছাড়া স্ট্র্যাচারে থাকা দুজন লোককে অ্যাম্বুলেন্সে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে, এমনটি দেখা গেছে।

শুক্রবার সকালে ওই ঘটনার পর পুলিশের কতগুলোকে গাড়িকে ক্যাপিটলের দিকে দ্রুতগতিতে যেতে দেখা গেছে। এরপরই এদিকের সব রাস্তা বন্ধ করে দেয় পুলিশ। একইসঙ্গে দর্শনার্থী, এমনকি সাধারণ নাগরিকদেরও সেখান থেকে সরে যেতে বলা হয়।

তবে কংগ্রেসে বর্তমানে অবকাশ চলছে। অর্থাৎ কংগ্রেস ভবন বা ক্যাপিটলে বেশির ভাগ আইনপ্রণেতার উপস্থিতি ছিল না এ দিন। 

গত ৬ জানুয়ারি মার্কিন ক্যাপিটল ভবনে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার ঘটনা ঘটে। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে রক্তাক্ত ওইদিনটি একটি লজ্জার বলে মনে করা হয়। ওই ঘটনার পর শুক্রবার প্রথম এ ধরনের ঘটনা।