আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণে একাধিক নির্বাহী আদেশ জারি করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আমেরিকার আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতাকে আন্তর্জাতিকভাবে বিব্রতকর একটি বিষয় হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

নির্বাহী আদেশ জারির পর স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেনে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনের পরিবর্তন নিয়ে কথা বলেন তিনি।

বাইডেন বলেন, আমেরিকার আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসত মহামারির আকার ধারণ করেছে। বিষয়টি আমেরিকার জন্য আন্তর্জাতিকভাবে বিব্রতকর।

বিবিসি বলছে, আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট কয়েকটি আলাদা নির্বাহী আদেশ জারি করেন। এই আদেশগুলো কংগ্রেসে আর অনুমোদনের প্রয়োজন নেই।

মার্কিন সংবিধানের দ্বিতীয় সংশোধনীতে নাগরিকদের অস্ত্র রাখার অধিকার নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট বাইডেন বিষয়টি নিয়ে বলেছেন, সংবিধানের কোনো সংশোধনীই চূড়ান্ত নয়।

বাইডেন বলেন, দেশে প্রতিদিন আগেয়াস্ত্রে গড়ে ১০৬ জন মানুষ নিহত হয়। এটা থামাতেই হবে।

ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ও অ্যাটর্নি জেনারেল মেরিক গারল্যান্ডকে সঙ্গে নিয়ে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রেসিডেন্ট বাইডেন ছয়টি পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বাইডেনের নির্বাহী আদেশে তথাকথিত ‘ঘোস্ট গান’ নিয়ন্ত্রণে বিচার বিভাগকে ৩০ দিনের মধ্যে প্রস্তাবনা জমা দিতে বলা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে সহজলভ্য আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করে একের পর এক মর্মান্তিক ঘটনা ঘটছে। এমন প্রেক্ষাপটে আগ্নেয়াস্ত্র বিতর্ককে চাঙ্গা না করে বাইডেন নিজের পন্থায় ব্যবস্থা নেন।

প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সিএনএন জানিয়েছে, বাইডেনের নির্বাহী আদেশে 'অদৃশ্য' অস্ত্রসহ বৈধভাবে সহজে সংগ্রহ করা যায়, এমন হালকা আগ্নেয়াস্ত্র সংগ্রহ ও ব্যবহারের ওপর কিছুটা নিয়ন্ত্রণ আনা হয়। আগ্নেয়াস্ত্র আইনে পরিবর্তন ছাড়া এ ক্ষেত্রে চূড়ান্ত কোনো সফলতার আশা না করলেও বাইডেন এ নিয়ে বসে থাকতে ইচ্ছুক নন।

যুক্তরাষ্ট্রের রক্ষণশীলরা আগ্নেয়াস্ত্র আইনের ব্যাপারে খুবই স্পর্শকাতর। রিপাবলিকান দলের অধিকাংশ আইনপ্রণেতা বলে আসছেন, সংবিধানের দ্বিতীয় সংশোধনী অনুযায়ী নাগরিকদের অস্ত্র রাখার অধিকার নিশ্চিত করার ওপর হস্তক্ষেপ নাগরিক স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপের শামিল।

সম্প্রতি কলোরাডো ও জর্জিয়ায় সহিংস ঘটনার পর বাইডেন সাধারণ বিচার-বিবেচনা অনুযায়ী দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানান। বাইডেন বলেন, তিনি এ নিয়ে আর একমুহূর্ত সময় নষ্ট করতে ইচ্ছুক নন। সাধারণ পদক্ষেপের মাধ্যমে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণের মধ্য দিয়ে প্রাণহানি কমানোর কথা বলেছেন তিনি।

মন্তব্য করুন