মিয়ানমারে সাত বছরের এক শিশু গুলিবিদ্ধ হয়েছে। ভারতীয় সীমান্তের কাছাকাছি সাগাইং অঞ্চলে তামু নামের এক জায়গায় সোমবার সেনারা অভিযান চালায়। এ সময় সাতবছরের ওই মেয়ে বাড়ির বাইরে খেলতে বেরোলে সেনারা মেয়েটাকে গুলি করে। গুরুতর আহত মেয়েটি বেঁচে আছে কি-না সেটা এখনো জানা যায়নি। 

গত সপ্তাহে তামুতে কয়েকজন সেনা নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিশোধ হিসেবে নিরাপত্তা রক্ষীরা সোমবার সকাল থেকে এ অভিযান শুরু করে। খবর ইরাবতী অনলাইনের।

এর আগে গত ২৪ মার্চ সেনাদের গুলিতে সাত বছরের আরেকটি শিশু নিহত হয়। মানবাধিকার সংগঠন সেভ দ্য চিলড্রেন জানিয়েছে, সেনারা ক্ষমতা দখলের পর জনতা সেনাশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করার পর থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে কমপক্ষে ৪৩ শিশু নিহত হয়েছে।

ভারত সীমান্তের কাছাকাছি ওই শহরের একজন বাসিন্দা জানিয়েছেন, গুলিবিদ্ধ মেয়েটির বিস্তারিত কোনো তথ্য জানা যায়নি। ওই সময় সেনাদের গুলিতে অনেকে প্রাণ হারিয়েছে বলেও জানা গেছে। তবে সংখ্যা ঠিক জানা যায়নি। এলাকার বাসিন্দারা পালিয়ে গেছে। বাসিন্দারা জানিয়েছেন, সোমবারের ওই অভিযানে কমপক্ষে ৬ ঘণ্টা ধরে চলে। 

এদিকে একজন বিক্ষোভকারী জানিয়েছেন, সেনাদের উপস্থিতি প্রতিহত করতে তারা শহরের প্রবেশপথগুলো বন্ধ করে দিলেও জান্তাবাহিনী রোডব্লক ভেঙে শহরে ঢুকে পড়ে।

তামুর সিভিল ডিফেন্স ফোর্সের এক সদস্য জানান, আমরা লড়াইয়ে জিততে পারব না জেনে সরে যায়। কিন্তু সেনারা কোনো বাধা না পেয়েও অনবরত গুলি চালায়। চোখের সামনে যা পড়েছে, তাতেই গুলি করেছে তারা। শহরের হাসপাতালে প্রবেশ করে ভাঙচুর এবং চিকিৎসক ও স্টাফদের মারধর করে। তাদের কাছ থেকে মোবাইল কেড়ে নেয়।

মন্তব্য করুন