ভারতের সবচেয়ে বেশি করোনাদুর্গত রাজ্য মহারাষ্ট্রে অক্সিজেন ট্যাংক লিক হয়ে ২২ কভিড রোগী মারা গেছেন। তারা দম বন্ধ হয়ে মারা গেছেন বলে জানা গেছে। নাসিকের ডাক্তার জাকির হোসেন হাসপাতালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার সময় হাসপাতালের ভেন্টিলেটরে ছিলেন ওই ২২ করোনা রোগী। ওই সময় হাসপাতালটিতে ১৭১ জন রোগী ছিলেন। দুর্ঘটনার পর অনেক রোগীকে অন্য হাসপাতালে স্থান্তরিত করা হয়েছে। খবর এনডিটিভির

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ট্যাংকারে অক্সিজেন ভর্তি করা হচ্ছিল। সে সময় ট্যাংকার থেকে অক্সিজেন লিক হতে শুরু করে। মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে জানিয়েছেন, নাসিকে ট্যাঙ্কারের ভাল্ব লিক করে এই ঘটনা ঘটেছে।

মহারাষ্ট্রের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীশ ঘটনাটিকে ভয়ঙ্কর বলে মন্তব্য করে বলেন, নাসিকে যা ঘটেছে, তা ভয়ঙ্কর। তিনি বিষয়টি নিয়ে পূর্ণ তদন্তের দাবি জানান।

করোনাকালে অক্সিজেন ট্যাঙ্কারের ঘাটতি দেখা দিয়েছে ভারতে। এরমধ্যে মহারাষ্ট্রে করোনা পরিস্থিতি বিপজ্জনক। এ অবস্থায় হাসপাতালে এ রকম ঘটনা উদ্বেগ বাড়াবে, এটাই স্বাভাবিক।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেসামাল মহারাষ্ট্র এবার পুরো লকডাউনের পথে হাঁটতে চলেছে। বৃহস্পতিবার রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। মঙ্গলবার অবশ্য এ ব্যাপারে আভাস দেওয়া হয়েছে।

বিষয় : করোনা করোনা রোগী মহারাষ্ট্র ভারত

মন্তব্য করুন