ভারতে দিন দিন জটিল হয়ে উঠছে করোনা পরিস্থিতি। দিন যতই গড়াচ্ছে, ততই বাড়ছে এর দাপট। নানারকম ব্যবস্থা নিয়েও ভারত সরকার সংক্রমণ কমানোর বিষয়ে কার্যকর কিছু করতে পারছে না। এ অবস্থায় তাই পুরো ভারতে সর্বাত্মক লকডাউন জারি করার আহ্বান জানিয়েছেন কংগ্রেসের নেতা রাহুল গান্ধী। করোনার রেশ কমাতে সম্পূর্ণ লকডাউনই একমাত্র পথ বলে দাবি তার। খবর কলকাতা ২৪-৭ এর।

মঙ্গলবার নিজের টুইটারে এক পোস্টে রাহুল কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশে বলেন, দেশে এখন যে অবস্থা চলছে, তা থেকে উত্তরণের জন্য একমাত্র উপায় হলো পুরো লকডাউন। কঠিন লকডাউন ছাড়া এ পরিস্থিতি মোকাবিলা করা যাবে না।

রাহুল বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার বিষয়টার গুরুত্ব বুঝতে পারছে না। তাদের উচিত ন্যূনতম আয়ের ব্যবস্থা করার মাধ্যমে লকডাউন ঘোষণা করা।

এই বিষয়ে মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশ্যে একটি টুইট করে তিনি বলেন, দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার একমাত্র উপায় হল সম্পূর্ণ লকডাউন। কেন্দ্রীয় সরকার কেন এটা বুঝতে পারছে না। নূন্যতম আয়ের ব্যবস্থার মাধ্যমে সরকারের উচিত লকডাউন ঘোষণা করা। করোনার সংক্রমণ ও লকডাউন নিয়ে সরকার নিষ্ক্রিয়। তাই প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন, সরকারের নিষ্ক্রিয়তায় বহু  মানুষ মারাও যাচ্ছেন।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এর আগে বেশ কয়েকবার বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে লকডাউন সম্পর্কে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে কোনও ইঙ্গিত দেওয়া হয়নি। জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিতে গিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও দেশে সম্পূর্ণ লকডাউন জারি করা হবে কি না এ বিষয়ে কিছু বলেননি। এছাড়াও অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানিয়েছিলেন, দেশে লকডাউন জারি করার কোনও রকম পরিকল্পনা এখনই কেন্দ্রের নেই।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্যসচিব অ্যান্টনি ফৌসি বলেছেন, ভারতে কয়েক সপ্তাহের টানা লক ডাউন সংক্রমণ অনেকটাই কমিয়ে আনতে পারে। দেশের শীর্ষ আদালতও কেন্দ্রকে লকডাউনের সুপারিশ করেছে। সরকার অবশ্য এসবে কান দেয়নি।

বিষয় : ভারত করোনা সংক্রমণ লকডাউন রাহুল গান্ধী

মন্তব্য করুন